নিষিদ্ধ দশটি বই!!!

7407
SHARE

বই পড়তে কে না ভালবাসে। কিন্তু কিছু বই আছে যা বিভিন্ন দেশে প্রকাশ এবং বিক্রয়ের উপর নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। আসুন আজ জেনে নেই এমনি ১০ টি বই সম্পর্কে যা নিষিদ্ধ বইগুলোর শীর্ষে।

১০। লর্ড অব দা ফাইলস (Lord of the Flies), ১৯৫৪, উইলিয়াম গোল্ডিং

10

বিংশ শতাব্দীর সেরা বই গুলোর মধ্যে সেরা একটি বই হল ‘লর্ড অব দা ফাইলস’ বইটি এবং সবচেয়ে নৃশংস মানব চরিত্র নিয়ে চিত্রায়ন করা হয়েছে এই বইটিতে। এই ক্লাসিক বইটি যথারীতি নিষিদ্ধ হয়ে আসছে। আমেরিকান লাইব্রেরি এসোসিয়েশন এর নিষিদ্ধ বই এর তালিকায় এই বইটির  স্থান ৬৮ তম। এই বইতে কিছু সংখ্যক ছেলেদের বর্বর মৃত্যুর গল্প তুলে ধরা হয়েছে।  এই বইটিতে আরও তুলে ধরা হয়েছে মানুষের খারাপ দিকগুলো এবং তাঁদের একে অপরের সাথে যুদ্ধে লিপ্ত হওয়ার প্রবণতা সম্পর্কে । এই বইটি এমনভাবে লিখা যা পাঠকের মনকে বিক্ষিপ্ত করতে পারে।  

 

 

৯।এডভেন্ঞার অব হাকলেবেরি ফিন (Adventures of Huckleberry Finn), ১৮৮৪, মার্ক টোয়েন

09

পুরনো জনপ্রিয় বইগুলোর মধ্যে একটি ‘এডভেন্ঞার অব হাকলেবেরি ফিন’ এই বইটি এবং ‘গ্রেট আমেরিকান উপন্যাস’হিসাবে তালিকাভুক্ত করা।  “হাকলেবেরি ফিন” বইটির উপর নিষেধাজ্ঞা বর্তমানেও বিদ্যমান। টোয়েন এর “দা এডভেন্ঞার অব টম সয়্যার ” এর সিকুয়েল এই বই টি।   এই বইয়ের ভাষা এবং বিশেষভাবে ঘন বর্ণবাদী তিরস্কারের জন্য জনগণের তোপের মুখে পরে

৮। নাইনটিন এইটটি-ফোর (Nineteen Eighty-Four), ১৯৪৯, জর্জ অরওয়েল

08

একজন লেখক একাধিকবার নিষিদ্ধ ঘোষিত হয়েছিলেন, তিনি হলেন জর্জ অরওয়েল। তার লেখা সেরা নিষিদ্ধ বই গুলর মাঝে ‘নাইনটিন এইটটি-ফোর’  বেছে নেয়ার কারণ মূলত এর বিদ্রূপ পূর্ণ লেখার জন্য। এই বইয়ের হিরো উইনস্টন স্মিথ, এমন একটি সমাজে বাস করে যা যুদ্ধ এবং বিপ্লব দ্বারা বিধ্বস্ত এবং ধ্রুব নজরদারির অধিনস্ত। সোভিয়েত ইউনিয়ন সরকার সহ বিভিন্ন সরকার বই সম্পূর্ণভাবে নিষিদ্ধ ঘোষণা করেন।

 

৭। দা হ্যারি পটার সিরিজ (The “Harry Potter series), ১৯৯৭- ২০০৭ , জে কে রাওউলিং

07

পৃথিবীর সর্বকালের সেরা বিক্রিত সিরিজ বই গুলর একটি ‘দা হ্যারি পটার সিরিজ’। এই বইটি ৭৩ টি ভাষায় অনুবাদিত হয়েছিল। কিন্তু এর মানে এই নয় যে এই বইটি কখনোই নিষিদ্ধ বই হতে পারে নাহ। এই বইয়ে যেভাবে অতিপ্রাকৃত, কাল্পনিক, বিস্ময়কর, জাদু বিদ্যা, ডাইনীবিদ্যা ইত্যাদি বিষয়গুলোকে তুলেধরা হয়েছে, তা অনেক ধর্মীয় সংগঠনের কাছে গ্রহণযোগ্য ছিল না। যার ফলে তারা এই বইটিকে চ্যালেঞ্জ করে এবং কিছু কিছু দেশে এই বইটি নিষিদ্ধ।

 

 

 

৬। অ্যামেরিকান পিসাইকো (American Psycho), ১৯৯১, ব্রেট ইস্টন এলিস

06

জার্মানিতে ‘অ্যামেরিকান পিসাইকো’ বইটিকে ছোটদের জন্য ক্ষতিকর হিসেবে গণ্য করা হয়। কেবলমাত্র অস্ট্রেলিয়াতেই ১৮ বছরের উপড়ের মানুষরাই এই বইটি কিনতে বা ভারা নিতে পারে এবং নিউজিল্যান্ডেই এই বইটি সঙ্কুচিত আবৃত (shrink-wrapped) অবস্থায় পাওয়া যায়। সংক্ষেপে বলতে গেলে, বেশ আলোড়ন সৃষ্টির কারণ এই “আমেরিকান সাইকো” বইটি ! চরম সহিংসতার তার অপ্রতিহত চিত্রাঙ্কনের জন্য বিখ্যাত, ব্রেট ইস্টন এলিস তার এই বইটির প্রাথমিক প্রকাশনার পরে মৃত্যুর হুমকি পেয়েছেন! এই গল্প সমালোচকদের দ্বারা প্রশংসিতও সঙ্গে সমালোচকদের দ্বারা অভিযোজিত। এই বইটি পরা সত্যিই খুব কঠিন , অনেকটা জেগে থেকে দুঃস্বপ্ন দেখার মত।

৫। দা স্যাটানিক ভার্সেস (The Satanic Verses), ১৯৮৮, সালমান রুশদি

05

এখনো পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি বিতর্কিত বইগুলোর মধ্যে সালমান রুশদি র ‘দা স্যাটানিক ভার্সেস’ বইটি অন্যতম। এই বইটিতে তিনি বাক স্বাধীনতার অপব্যাবহার করে ইসলাম ধর্মকে উপহাস করেছিলেন। ১৯৮৯ সালে ইরানে এই বইটির উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয় এবং এই বইয়ের প্রকাশনার সাথে কেও জড়িত থাকলে তাকে মৃত্যুদণ্ড দেয়ার ঘোষণা দেয়া হয়। রুশদি বেশ কয়েকবার আতাতায়ির হাত থেকে বেঁচে যান। কিন্তু ১৯৯১ সালে এই বইয়ের জাপানী অনুবাদক হিতোশী ইগারাশি খুন হন।        

 

৪। মেইন কাম্ফ (Mein Kampf), ১৯২৫-২৬, এডলফ হিটলার

04

পৃথিবীর সবচেয়ে কুখ্যাত মানুষের আত্মজীবনী মূলক বই হল , এডলফ হিটলার এর মেইন কাম্ফ বইটি। পৃথিবীর সবচেয়ে কঠোর পুনর্নীরিক্ষিত গ্রন্থে একটি এই বই । যদিও অনুবাদকৃত কপি অধিকাংশ দেশে পাওয়া যায়।  

 

 

 

৩। ললিতা (Lolita), ১৯৫৫ , ভ্লাদিমির নাবকভ  

03

ভ্লাদিমির নাবকভ উপন্যাসটি লিখতে পাঁচ বছর সময় নেন এবং আরও দুই বছর প্রকাশ করতে! তিনি পরবর্তীতে সন্ধেহজনকভাবে খ্যাতি অর্জন সহ ফ্রান্স প্রকাশনার জন্য স্থায়ীভাবে কাজ শুরু করেন। ১৯৫৫ সালে এই বইটির মুক্তির পর পাঠকরা তাঁদের ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানান এবং ব্রিটিশ সরকার দ্রুতগতিতে “ললিতা” আমদানি নিষিদ্ধ ঘোষণা করে এবং ফ্রান্স শীঘ্রই তাঁদের অনুসরণ করে। শেষ পর্যন্ত ১৯৫৮ সালে এই বই আমেরিকায় হাজির হয় এবং ১৯৫৯  সালে ব্রিটেনে পুনঃপ্রকাশিত হয়।

 

 

২। ব্রেভ নিউ ওয়ার্ল্ড (Brave New World), ১৯৩২ , আল্ডউস হুক্সলেই

02

একটি বিদ্রূপাত্মক শিরোনাম যা একবার হলে সবাই পরেছে।এই বইটই বিশ্বজুড়ে চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হয়েছে।১৯৩২ সালে, ধর্মীয় বিরোধী ভাষার  জন্য আয়ারল্যান্ডের নিষিদ্ধ করা হয়, ৩২ ও ৩৭  সালের মধ্যে – অস্ট্রেলিয়া নিষিদ্ধ হয়,  ৬৭  সালে ভারতে এই বইটিকে ‘পর্নোগ্রাফার’ হিসেবে লেবেল করা হয়েছে এবং ১৯৮০ সালে এটি মিসৌরি, ইউ এস এ এ শ্রেণীকক্ষ থেকে সরানো হয়েছে।  তবে, এটি ধারাবাহিকভাবে সর্বশ্রেষ্ঠ উপন্যাস হিসাবে স্থান পেয়ে আসছে।

১। দা ক্যাঁচার ইন দা রে (The Catcher in the Rye), ১৯৫১, জে ডি সালিনগার

01

হল্ডেন কল্ডফিল্ড দীর্ঘদিন থেকে কিশোরদের মাঝে এবং সাহিত্যের মধ্যে একটি কাল্পনিক অবস্থান প্রতিষ্ঠা করেছেন। কিন্তু কল্ডফিল্ড এর ভাষা, পারিবারিক মূল্যবোধ, নৈতিক কোড, এবং বিদ্রোহী অভ্যাস জে ডি সালিনগার এর মধ্যে  এবং  ‘দা ক্যাঁচার ইন দা রে’ বইয়ের মধ্যে  অবতরণ করেছে খুব ঘন ঘন। এই বই টি অনেকবার চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হয়েছে এবং শিক্ষককে বহিস্কার করা হয়েছে পাঠ্যপুস্তকে অন্তর্ভুক্ত করার জন্য। একজন খুনি দাবি করেছেন তিনি এই বইটি পরে খুন করতে অনুপ্রাণিত হয়েছেন।

আর আজ এটা আমাদের অবিসংবাদিত নিষিদ্ধ শ্রেষ্ঠ বই এর শীর্ষে অবস্থান করছে।

 

 

 

আজ সেরা ১০ এর এ পর্যন্তই। আগামীতে আবার হাজির হব নতুন কোন সেরা ১০ এর তালিকা নিয়ে । ভাল থাকুন, সুস্থ থাকুন।

আপনার মন্তব্য