স্বাধীনতা বিরোধীদের বংশধররাই আজকের জংগী?

52
SHARE

বর্বরোচিত গুলশান হামলার পর কয়েকদিনের মধ্যেই আবার শোলাকিরায় হামলা ! গোয়েন্দা তথ্যানুযায়ী ২টি ঘটনারই মাষ্টার মাইন্ড কানাডা প্রবাসী তামিম চৌধুরী ! রীতিমত ত্রাসের রাজত্ব কায়েম হতে চলেছিল যেন ! কিন্তু একে একে লাগাম টেনে ধরা যাচ্ছে যেন ! আজ পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের ” হিট স্ট্রং ২৭ ” অভিযানে নারায়ণগঞ্জের পাইকপাড়ায় নিহত হল মাষ্টারমাইন্ড তামিম সহ ৩ জঙ্গি ।

এর আগে কল্যাণপুরের জঙ্গি আস্তানায় অভিযানে ৯ জঙ্গি নিহত হওয়ার ঘটনায় দায়ের করা মামলায় বলা হয়েছিল , প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃত জঙ্গি রাকিবুল হাসান রিগ্যান জানিয়েছে, কল্যাণপুরে তাদের জঙ্গি আস্তানায় তামিম চৌধুরী, রিপন, খালিদ, মামুন, মানিক, জোনায়েদ খান, বাদল ও আজাদুল ওরফে কবিরাজ নামে ব্যক্তিরা নিয়মিত যাতায়াত করত। তারা তাদের ধর্মীয় ও জিহাদি কথাবার্তা বলে উদ্বুদ্ধ করত। প্রয়োজনী টাকা-পয়সা দিয়ে যেত। নারায়ণগঞ্জের অভিযানে তামীমের সাথে নিহত অপর ২ জঙ্গির একজন জঙ্গি মানিক এবং অপরজন জঙী ইকবাল বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে ! তামিমকে গ্রেপ্তার করা গেলে জেএমবির ‘নতুন ধারার’ আদ‌্যোপান্ত বেরিয়ে আসবে বলে আশা করেছিলেন পুলিশ মহাপরিদর্শক এ কে এম শহীদুল হক।

1
জংগী – তামিম চৌধুরী 

গুলশান ও শোলাকিয়ায় হামলায় ঘরছাড়া তরুণ-যুবকদের জড়িত থাকার তথ্য প্রকাশের পর আইনশৃঙ্খলা বাহিনী নিখোঁজ ১০ জনের যে প্রথম তালিকা দিয়েছিল, তাতে সিলেটের তামিমের নাম এসেছিল। মধ‌্যপ্রাচ‌্যভিত্তিক জঙ্গিগোষ্ঠী আইএসের বিভিন্ন প্রকাশনার উপর ভিত্তি করে তাকে সংগঠনটির বাংলাদেশ শাখার সমন্বয়ক বলা হচ্ছিল আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যমে।সিলেটের বিয়ানীবাজার উপজেলার দুবাগ ইউনিয়নের বড়গ্রামের প্রয়াত মজিদ চৌধুরীর নাতি তামিম চৌধুরী । স্থানীয়দের তথ্যানুযায়ী আব্দুল মজিদ চৌধুরী একাত্তরে মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন সময়ে শান্তি কমিটির সদস্য ছিলেন বলে জানা যায় ।

তামিমের বাবা শফি আহমদ জাহাজে চাকরি করতেন। মুক্তিযুদ্ধ পরবর্তী সময়ে তিনি সপরিবারে কানাডায় পাড়ি জমান। কানাডার পাসপোর্টধারী তামিম ২০১৩ সালের অক্টোবরে দুবাই হয়ে বাংলাদেশে আসার পর থেকে নিখোঁজ ছিলেন বলে গত ২ অগাস্ট জানিয়েছিলেন পুলিশ কর্মকর্তা মনিরুল।

রক্ত বদলায় না। রক্ত পানির চাইতেও ঘন। এটাই প্রমান হলো। তামিমের পূর্বপুরুষরা ৭১ এ স্বাধীনতা বিরোধি ছিল। আর আজকের নব্য রাজাকার তামিমরা ধর্মের নামে বাংলাদেশ বিরোধী কর্মে লিপ্ত। তবে লাভ নেই। স্বাধীনতা বিরোধীরা এদেশে অবস্থান করতে পারবে না কোনদিন।

এনিয়ে আমাদের কিছু ভিডিও আছে, আরো সামনে আসছে। দেখতে চাইলে আমাদের ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করে রাখুন। লিঙ্ক – YouTube.com/Bangladeshism

ছবি – বাংলাট্রিবিউন

আপনার মন্তব্য