জংগী তামিমের উত্তরসুরী “মুরাদ” ?

45
SHARE

একের পর এক জংগী দমন অভিযানে জঙ্গী গোষ্ঠীর ধর্ম ব্যবসা লাটে উঠলেও তারা এখনও হাল যে একেবারেই ছেড়ে দিচ্ছে তা না! খুড়িয়ে খুড়িয়েও তারা জঙ্গী কার্যক্রম চালাতে পারে সেই ব্যবস্থা তারা অবশ্যই করছে। জংগী তামিম মরার পর এখন তার জায়গা কে নিবে এ নিয়ে বেশ কয়েকটি নাম ইতিমধ্যে চলে এসেছে। তার নাম মুরাদ ওরফে জাহাঙ্গী [সূত্রঃ প্রথম আলো]।

এখন প্রশ্ন হলো, আরো একজন জঙ্গী যে সেনাবাহিনী থেকে বিতাড়িত মেজর জিয়া, তাকে এখনও ধরা হয়নি। যদিও ধারনা করা হচ্ছে তার দিনও ফুরিয়ে আসছে অতি শীঘ্রই। সাম্প্রতিক অভিযানগুলো এসব সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর মেরুদন্ড গুড়িয়ে গেলেও আমাদের মনে রাখতে হবে, অনেক বছর আগেই এই জেএমবি কে শেষ করা হয়েছিল। কিন্তু এত বছর পর তারা নতুন শক্তিতে এসে বাংলাদেশে আবারো হামলা চালায়। সুতারাং এক তামিম শেষ হয়েছে বলে বসে থাকার কারো উপায় নেই।

এরা প্রতিনিয়ত নানা চক্রান্ত করে যাবে বাংলাদেশের ক্ষতি করার জন্য। এক এক বার এক এক রুপে, এক এক ফর্মে। আগেও অনেকবার বলেছি – এসব জঙ্গীগিরি মূলত একটা ব্যবসার মত। ধর্ম ব্যবসা সোজা কথায়। ধর্মকে পুজি করে ব্যবসা। মাঠ পর্যায়ে এসব জংগীদের এত বড় আইডিয়া না থাকলেও পালের গোদাগুলোর কাছে এগুলো নিখাদ একটা ব্যবসা ছাড়া আর কিছু না। ধর্মকে বিকৃত করে নানা মোড়কে পেচিয়ে তার ভুল ব্যাখ্যা বের করে ব্রেইন ওয়াশ করে কিছু গাধাদের তারা কাজে লাগায় তাদের হীন সার্থে। এবং এত সহজে এগুলো কমে যাবে না।

বাংলাদেশের মত দেশে জংগী গিরি কোনদিনও সাকসেস হবে না। এর একটাই কারন – ১৭ কোটি মানুষের দেশ আর এদেশের মানুষ আদপে সহজ সরল হলেও বেশীরভাগ মানুষই জীবনের সাথে যুদ্ধ করে যায় প্রতিনিয়ত। কখনও পেটের জন্য, কখনও চাকুরীর জন্য, কখন শিক্ষার জন্য আবার কখনও ন্যায়বিচারের জন্য। প্রতিদিন যুদ্ধ করে যাওয়া এসব মানুষের গায়ের উপরে যদি এখন জংগী এসে পড়ে তাহলে এসব জংগীদের ছেড়ে কেউ কথা বলবে না। তাদের জবাব দেয়ার জন্য কিন্তু মুখিয়ে আছে বাংলাদেশের মানুষ। সুযোগের অপেক্ষায় আছে ঠিক কখন করবে। আর এমন জায়গায় এসব মুরগীর ফার্ম থেকে উঠে আসা ব্রেইনওয়াশ হওয়া জংগী ধর্ম ব্যবসা করে এদেশে টিকতে পারবে? অসম্ভব!

এধরনের র‍্যাডিকালিজম এই দেশে চলবে না। আর এসব সন্ত্রাসী গোষ্ঠী যদি ইতিমধ্যে ব্যাপারটা বুঝে না থাকে, তাহলে বলতে হবে তারা বোকা, আসলেই বোকা। দূরে থাক বাংলাদেশ থেকে জংগী বাহিনী। তা না হলে শকুনেও লাশ খাবে না।

আপনার মন্তব্য