Archive

সোহেল হাবিব  দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ভূগর্ভস্থ পানিতে  দেখা দিয়েছে লবণাক্ততার আতঙ্ক।দিন যত যাচ্ছে ততই বাড়ছে এর ভয়াবহতা।ফলে ভিটেমাটি ছেড়ে অন্যত্র চলে যাচ্ছে মানুষ। সম্প্রতি বিশ্বব্যাংকের গবেষক দল দক্ষিণবঙ্গের একাধিক উপজেলায় লবণাক্ততার পরিমাণ পেয়েছে ১০ পার্টস পার থাউজেন্ড (পিপিটি) মাত্রার বেশি। আগামী

  ইউসুফ হায়দার আপনি কি ভাবতে পারেন যে, বাংলাদেশের বন্দর নগরী তথা বাণিজ্যিক রাজধানী খ্যাত চট্টগ্রাম শহরেই থাকতে পারে আধুনিক চোরের ডিজিটাল গুহা? আপনি বিশ্বাস করুন আর নাই করুন তাতে কিছু আসে যায় না। আসলেই এমন একটি ডিজিটাল গুহার সন্ধান

সব মানুষের উৎসুক দৃষ্টি এখন ভারত-পাকিস্তান সীমান্তের দিকে। কখন কী যে হয় কিছুই বলা যাচ্ছে না। ইতোমধ্যে ভারতীয় সৈন্যরা নিয়ন্ত্রণ রেখা পার হয়ে হামলা চালিয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে। এবং তাতে ২ জন পাকিস্তানি সৈন্যসহ অনেকেই প্রাণ হারিয়েছেন বলে বলা

ম্যাগনেট বা চুম্বক – আমরা সবাই চিনি। চুম্বক নিয়ে বেশ কিছু ব্যাপার আছে যেগুলো সাধারন জ্ঞানের মধ্যে পরে… চুম্বকের কারনে যে চৌম্বকীয় শক্তি তৈরী হয় তাকে চৌম্বকীয় ক্ষেত্র বা ম্যাগনেটিক ফিল্ড বলা হয়। ম্যাগনেটি ফিল্ড বা চৌম্বকীয় ক্ষেত্রকে চোখে দেখা

শখের বসেই ইন্টারনেটে নানা রকম এলিয়েন, ইউ এফ ও সম্পর্কিত তথ্য খোঁজা হয়। অনেক সাইট ভিজিট করি। অনেক সাইটই সিরিয়াসলি অনেক প্রমান পেশ করে যা অনেক সময় বিশ্বাস হয় আবার হয় না। নিজে যত ক্ষন দেখিনা ততক্ষন বিশ্বাস করিই বা

মায়ান সভ্যতা প্রাচীন পৃথিবীর অন্যতম নিদর্শন। ইউরোপ যখন অন্ধকার যুগে নিমজ্জিত, সেই খ্রিস্টপূর্ব ২৬০০ সালে মায়ান সভ্যতা বিকাশ লাভ করে মধ্য আমেরিকায়। মেক্সিকো এবং গুয়েতেমালার গহিন জঙ্গলে বিস্তৃত চুনাপাথরের পাহাড়ে ইউকাতান পেনিনসুলায় রয়েছে অসংখ্য রহস্যময় মন্দির, পাথরের দেয়াল, পিরামিড এবং

পারমাণবিক বোমা, যার নামটি চোখের সামনে ভেসে উঠে এক বিশাল ধ্বংস ।   প্রথম ও দিতীয় বিশ্ব যুদ্ধের সমসাময়িক সময় গুলোতে  পারমাণবিক বোমার মারাত্মক দুর্ঘটনাগুলো ঃ ১৯৫০ – ব্রিটিশ কলম্বিয়া তৎকালীন মার্কিন সেনাবাহিনীর একটি ভূ্লে ফেব্রুয়ারী ১৯৫০ সালে কানাডার ব্রিটিশ

আমরা সবসময় অদ্ভুত কিছু সত্য ব্যাপার বের করে আনার চেষ্টা করি কিন্তু আজ এমন কিছু জিনিষ দেখাবো আপনাদের যেগুলো সম্ভবত আপনারা কেউ দেখেননি কিন্তু আসলেই আছে। মানুষ পারে না এমন কিছু আসলেই নেই! ১। ইট-বিছানোর যন্ত্র! এই মেশিনটি দিয়ে ইট

আমাদের অনেকেরই মহাকাশ নিয়ে বেশ কিছু ভুল ধারনা আছে। আসলে আমরা তো কখনও মহাকাশে যায়নি এবং মহাকাশ আসলে পড়ালেখা করার জন্য অনেক বিশাল একটা ব্যাপার। সিনেমা আর টিভি দেখেই যতকিছু জানতে পারি। আজকের ইন্টারেস্টিং ব্যাপারে মহাকাশ নিয়ে কিছু ভ্রান্ত ধারনার

মহাকাশ নিয়ে সবারই জানার আগ্রহের কোন শেষ নেই। বিজ্ঞানীদের চেষ্টারও কোন সীমা যেন নেই। আসলে মহাকাশ জিনিষটাই এত বড় – মনে হয়না এটা নিয়ে রহস্যের শেষ কোনদিন হবে। এখন পর্‍্যন্ত ঠিক মত অন্য  কোন গ্রহেই আমরা যেতে পারি নি। তবে

ইদানিং নানা পদের খবর, গুঞ্জন, সুখবর আর কুখবরে আছন্ন হয়ে আছে পুরো বাংলাদেশের মিডিয়া। কারো আছে ট্যক অব দ্যা টাউন হবার তাড়া আবার কারো আছে শর্টকার্টে বড় কোন তারকা হয়ে যাওয়ার তাড়া। আর কেউ কেউ এই ফাকে কামিয়ে নিতে চায়

কর্ণফুলীর কালুরঘাট রেল সেতু। এর বয়স প্রায় ৮৪ বছরেরও বেশি হবে। তবে প্রাগৌতিহাসিক যুগ হতে নদী পারাপারের জন্য স্থানটি কালুর ঘাট নামে নদী পারাপারে ভূমিকা রেখে আসলেও ১৯৩০ সালে ব্রিটিশ শাসনামলে এ রেল সেতুটি নির্মিত হয়। স্থানীয় ভাবে কালুরঘাট সেতুটি