ক্ষমা চাও পাকিস্তান!

বিশ্ব মোড়লের প্রতিনিধি সোনার বাংলা ঘুরে গেলেন গত ২৯শে আগষ্ট ২০১৬ !! বলছিলাম জনাব জন কেরির কথা !!! সন্ত্রাস আর জঙ্গিবাদ বিরোধী লড়াইয়ে বাংলাদেশের সাথে থাকার আগ্রহ দেখিয়ে গেলেন ! আর এতেই আমাদের মনের কোণে অভিমান দেখা দিয়েছে ! কয়েকটা কাঁঠাল পাতা নিয়া বাংলাদেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলের একটা ছাগলকেও যদি প্রশ্ন করেন যে, ISIS কাদের সৃষ্টি, ছাগলেও বলবে ইস্রাইল আর আমেরিকার ! বস্তুত বর্তমান বিশ্বে সন্ত্রাসবাদের জন্মই দিয়েছে এই দেশ গুলা ! তাদের দেখা দেখি এখন নব্য মোড়লেরাও এই চর্চা আরম্ভ করেছে কেবল ! এখন প্রশ্ন করতে পারেন অভিমান কেন ?!?! অভিমান এই জন্য যে, আমরা যে সব বুঝি ওরা এইটাও বোঝেনা ; ওরা নিজেদের ভাবেটা কি ?!!!!! যাই হোক আমরা চিন্তিত আমাদের বাংলাদেশকে নিয়ে ; আমরা চিন্তিত দক্ষিণ এশিয়া নিয়ে , এই অঞ্চলের শান্তি ও সমৃদ্ধি নিয়ে ।

বাংলাদেশ, দক্ষিণ এশিয়ার একটি দেশ, আয়তন ১,৪৭,৫৭০ বর্গকিলোমিটার ( সদ্য সংযুক্ত ভূমির হিসেব বাদে ) ! স্বাধীন সার্বভৌমরাষ্ট্র হিসেবে আতঃপ্রকাশ ১৯৭১ সালে, বহু ত্যাগের বিনিময়ে পাকিস্তানের কাছ থেকে ! এ এক বিরাট বিশাল অর্জন – বলার অপেক্ষা রাখেনা ! প্রতিবেশী রাষ্ট্র গুলো হলঃ ভারত, পাকিস্তান, নেপাল, ভুটান, মালদ্বীপ, শ্রীলংকা ও আফগানিস্তান !

ভারতের আয়তন ৩,২৮৭, ২৬৩ বর্গ কিলোমিটার । স্বাধীনতা অর্জন ১৯৪৭ সালের ১৫ আগষ্ট । পাকিস্তানের বর্তমান আয়তন ৮৮১, ৯১৩ বর্গ কিলোমিটার । স্বাধীনতা অর্জন ১৯৪৭ সালের ১৪ আগষ্ট ।

নেপালের আয়তন ১৪৭,১৮১ বর্গ কিলোমিটার । স্বাধীনতা অর্জন ১৯২৩ সালের ২১ ডিসেম্বর ব্রিটেনের কাছ থেকে !

ভুটানের আয়তন ৩৮, ৩৯৪ বর্গ কিলোমিটার । ভুটান ইতিহাসের অল্প কিছু সংখ্যক দেশ গুলোর মধ্যে একটি যা কখন সেই অর্থে পরাধীন ছিলনা ! ১৯১০ সালে “ পুনাখা ট্রিটি ”-রা মাধ্যমে ব্রিটেন কিছুটা নিয়ন্ত্রণ করলেও সেই অর্থে পরাধীন ছিলোনা !

মালদ্বীপের আয়তন ২৯৮ বর্গ কিলোমিটার ! স্বাধীনতা অর্জন ১৯৬৫ সালের ২৬ জুলাই ব্রিটেনের কাছ থেকে । শ্রীলংকার আয়তন ৬৫, ৬১০ বর্গ কিলোমিটার । স্বাধীনতা অর্জন ১৯৪৮ সালের ৪ ফেব্রুয়ারি !

আফগানিস্তানের আয়তন ৬৫২,৮৬৪ বর্গ কিলোমিটার । স্বাধীনতা অর্জন ১৯১৯সালের ১৯ আগষ্ট ব্রিটেনের কাছ থেকে ।

এই অঞ্চলের দেশ গুলো প্রাকৃতিক সম্পদ ও পরিবেশ এবং মানব সম্পদের দিক দিয়ে প্রকৃতির আশির্বাদ পুষ্ট ! কিন্তু তারপরও এই অঞ্চলের দেশ গুলোর উন্নয়ন প্রতি পদক্ষেপে বাধার সম্মুখীন ! সমস্যা যেন এই অঞ্চলের দেশ গুলোর পিছু ছাড়ছে না ! মান – অপমান, প্রাপ্তি – অপ্রাপ্তি-আর হারানো ছাড়াও আরো নানামুখী মানবিক সমস্যায় দেশ গুলো যেমন পরস্পর থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যাচ্ছে , তেমনি দেশ গুলোর মানুষও পরস্পর থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ছে ! দিন দিন এই অঞ্চলের সমস্যা জটিল থেকে জটিলতর হচ্ছে !!! বাংলাদেশ বর্তমান সময়ে বেশ কিছু সামাজিক ও রাষ্ট্রীয় সমস্যার মধ্য দিয়ে যাচ্ছে ! স্বাধীনতার পর থেকেই আমাদের এই দেশটি অনেক চড়াই উতরাই অতিক্রম করে যাচ্ছে ! কিন্তু এদেশের মানুষ উন্নয়ন ধারাকে অব্যাহত রেখেছে ! সমস্যা জর্জরিত না হলে এই উন্নয়ন হত আরো দ্রুত গতি সম্পন্ন ! এটা সকলেই অনুধাবন করে আসছে ! কিন্তু তারপরও বাধা আসছেই ! আর এই রকম সমস্যা এই অঞ্চলের অন্যান্য দেশ গুলোরও ! কারণ কি ?!?!?!?! লক্ষ্য করলে দেখা যায় এই অঞ্চলে কিছু সমস্যা সামাজিকভাবে প্রায় প্রতিষ্ঠা লাভ করে ফেলেছে এবং মানুষ মানসিকভাবে এই সমস্যা গুলোর প্রভাব দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হচ্ছে নিজের অজান্তেই ! আসলে এই সমস্যা গুলো এতটাই জটিল যে সঠিক ভাবে নাকরণ করাও বেশ কঠিন ! আর দীর্ঘ দিনে সমস্যাগুলো সামাজিক রীতিনীতি আর অভ্যাসের সাথে মিলেমিশে আরো জটিল হয়ে উঠেছে ! যেমন, ১৯৮৩ সালে শ্রীলংকার হিন্দু অধ্যুসিত অঞ্চল নিয়ে তামিল শিলংকানরা স্বাধীন রাষ্ট্র কায়েম করার স্বপ্নে যুদ্ধে নেমে গেল !

ভুটানে ১৯৮০ সালের দিকে নেপালের বংশউদ্ভত হোথসাম্পাস-রা সরকারের সাথে সংঘাতে জড়িয়ে গেল ! বাংলাদেশে হিন্দু – মুসলিম ও অন্যান্য ধর্মাবলম্বিদের মাঝে অনৈক্য আজ জাতীয় ঐক্য ও নিরাপত্তার জন্য এক বরাট হুমকি হয়ে দাঁড়িয়েছে ! তাছাড়া পার্বত্য চট্টগ্রাম সমস্যাতো রয়েছেই ! ভারতও এই সমস্যা থেকে মুক্ত নয় ! বরং একটু বেশিই জর্জরিত ! যেমনঃ কাশ্মির, আসাম, নাগালিম, ত্রিপুরা, খালিস্তান – সব খানেই চলছে স্বাধীনতা আন্দোলন ! লক্ষ্য করলে দেখা যায় সব খানেই স্বাধীনতা কামনার কারণ , হয় ধর্ম না হয় বৈষম্য ! আবার বৈষম্যের দিকে নজর দিলে দেখা যায় তার পেছনেও ধর্মের একটা প্রভাব আছে ! অর্থাৎ এক ধর্মের শাসক গোষ্ঠী অন্য ধর্মাবলম্বিদের অবহেলা করছে বলে অভিযোগ- আর এই উপলক্ষ্যে স্বাধীনতার দাবি করে বসল ! এক মাত্র ব্যাতিক্রম বাংলাদেশের পার্বত্য সমস্যায় !!! এটা একটা প্রতিবেশি দ্বারা বিশেষ উদ্দেশ্যে আয়োজিত সমস্যা, যাকে ধিরে ধিরে জটিল রুপ দেয়া হচ্ছে ! আসলে মানুষ গুলো, রাষ্ট্র গুলো যত বিভক্ত হবে , যত ছোট হবে তত নিয়ন্ত্রণ করতে সুবিধা ! সুতরাং ভাঙ্গ !!! কিন্তু স্বাধীনতা অর্জন যে কত কষ্ট, আর স্বাধীনতা লাভের পর যে কত সুখ ( !!!!!!!!!!!! ) এইটা বাংলাদেশের মানুষের চেয়ে কে বেশি জানে !

মজার বিষয় হল, কোন একটা বিশেষ গোত্রের কর্তা ব্যাক্তিদের ক্ষমতা আর অর্থের লোভ দেখালে খুব সহজেই এইরকম সমস্যা সৃষ্টি করা যায় ! এইটা কোন ব্যাপার না ! ভাবছেন , আপনি হলে জীবনেও এই রকম প্রস্তাবে রাজি হতেন না ?! কোন সমস্যা নাই, আপনি না হলে আপনার ভাই হবে , সে নাহলে অন্য কেউ হবে !!! মোট কথা এইটা কোন সমস্যা না ! আর একবার যদি এই রকম একটা সমস্যা শুধু শুরু করা যায় তাহলেই তা আর কোন দিন থামবেনা ! কারণ,প্রথম খুব সাধারণ কিছু দাবি নিয়ে আন্দোলন শুরু হবে ! তারপর কিছু হতাহতের ঘটনা ঘটানো হবে ! ব্যাস, এই হতা হতের ঘটনার মধ্য দিয়ে আন্দলোন আর ধর্মীয় আন্দোলন বা বৈষম্যের আন্দোলন থাকল না ! হয়ে গেল প্রতিহিংসার আন্দোলন !!! আর এই প্রতিহিংসা এমন এক জিনিস যা বংশ পরম্পরায় চলবে আপন গতিতে !!! যুক্ত হবে আরো নানান ইস্যু !!! আন্দোলন হবে জটিল থেকে জটিলতর !!!

আজ এই অঞ্চলে বহিঃশক্তির আগ্রাসনের আশংকা সীমাহীন ! অথচ দেশ গুলো মিলে মিশে থাকলে এই অঞ্চলে সীমাহীন সুখের সম্ভাবনা ছিল !!! ইসসসস……শুধু কেউ যদি আঞ্চলিক মোড়ল হইতে না চাইত ( !!!! ) …… ফলাফল – আজ দক্ষিণ এশিয়ার দেশ গুলোর একত্রিত হবার সম্ভাবনা নেই বললেই চলে ! যেমন , স্বাধীনতার এত বছর পরেও আজও পাকিস্তান ৭১ এর জন্য বাংলাদেশের কাছে একবার ক্ষমা চাইলনা ! যা তাদের উতিচ ছিল !

আপনার মন্তব্য
(Visited 1 times, 1 visits today)

About The Author

Bangladeshism Desk Bangladeshism Project is a Sister Concern of NahidRains Pictures. This website is not any Newspaper or Magazine rather its a Public Digest to share experience and views and to promote Patriotism in the heart of the people.

You might be interested in