স্বপরিবারে ‘জঙ্গীত্ব’ বরন !

45
SHARE

এতদিন তো ছিল বড় বড় প্রাইভেট ভার্সিটির ছাত্রদের ব্রেইনওয়াশ করে জংগী বানানোর সিস্টেম। এখন দেখা যাচ্ছে শুধু উঠতি তরুনরাই বিপথগামী না। এই বিপথগামীতাই অর্থাৎ জংগী লিস্টে কিছু মানুষ তাদের পরিবারসহ নাম লিখিয়ে নিচ্ছে। ঢাকা ও নারায়নগঞ্জ থেকে আটক হওয়া নতুন জেএমবির সদস্য হিসেবে এবার গ্রেপ্তার হলো দুই দম্পতি ! প্রশিক্ষন নিতে পাকিস্তান যাওয়ার প্রস্তুতির সময় ধরা খেল তারা। অফ দ্যা টপিক – পাকিস্তানেই কেন সব ট্রেনিং হয়?

কয়েকটি পত্রিকায় আসা খবরের একটু রেফার করে নেই কারন আমরা কোন সংবাদপত্র না, তাই সংবাদ ছাপানোর যোগ্যতা নেই। নীচের ছোট অংশটি বাংলাট্রিবিউন থেকে নেয়া –

“র‌্যাব-২ এর কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন র‌্যাবের মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক মুফতি মাহমুদ খান এ তথ্য জানান।  তিনি বলেন, জেএমবির বেশ কয়েকজন সদস্য জিহাদের প্রস্তুতি নিচ্ছে-এমন গোয়েন্দা তথ্যের  ভিত্তিতে  র‌্যাব-২ মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১২টায় ফার্মগেটের আনন্দ সিনেমা হলের বিপরীতে একটি রেস্টুরেন্ট অভিযান চালায়। সেখান থেকে মারজিয়া আক্তর সুমি (১৯), মো. শরিফুল ইসলাম ওরফে সুলতান মাহমুদ ওরফে মাহমুদ (১৮), মো. আমিনুল ইসলাম ওরফে আমিনুলকে (৩৪) আটক করে। তাদের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী রাত ৩টায় নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় অভিযান চালিয়ে নাহিদা সুলতানাকে (৩০) আটক করে। তাদের কাছ থেকে জিহাদি বই, লিফলেট, সিডি ও মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়। ” 

সামাজিক নেটওয়ার্কের মাধ্যমেই তারা জংগীদের সাথে সংযুক্ত হয়। এদের মধ্যে একটি মেয়ে কিছুদিন আগে পাকিয়ে গিয়ে আএক জংগী মাহমুদকে বয়ে করে। তারা দেশ ছাড়ার পরিকল্পনা করছিল। মেয়েরাও জংগি ধারায় ব্রেইনওয়াশ হয়ে পাল্কিয়ে গিয়ে জংগীদের বিয়েও করছে জংগী সংগঠনের সিদ্ধান্তে! অদ্ভুত! এদের কি মাথায় কোন ঘিলুই নেই? নতুন সদস্য সংগ্রহ করার কাজেই এরাবেশীরভাগ নিয়োজিত থাকে। আর তাদের কাছ থেকে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী দেশে আরো ৪/৫টি জংগী গ্রুপ আতমঘাতী হামলা এবং হত্যা করার পরিকল্পনা করছে।

 

আপনার মন্তব্য