পকেটমার আর ছিনতাইকারী থেকে সাবধান
November 17, 2016
Bangladeshism Desk (766 articles)
Share

পকেটমার আর ছিনতাইকারী থেকে সাবধান

সোহেল হাবিব

গত রবিবারের কথা। রাজধানী ঢাকার মিরপুর দশ নম্বর গোলচক্কর ঘেঁষে গড়ে উঠা শাহআলী মার্কেটের সামনে দাঁড়ানো ছিলাম।সাথে আমার স্ত্রী এবং ছোট বোন। মার্কেট বন্ধ, কিন্তু ফুটপাতের কয়েকটি দোকান খোলা। হঠাৎ করেই ফুটপাতের এক দোকানদার একটু অনুচ্চসরে বলে উঠল ‘ব্যাগ সাবধান’।

তাকিয়ে দেখি, ব্লু প্যান্ট এবং ফুলহাতা কালো গেঞ্জিপরা একটি ছেলে আমাদের কাছ থেকে দ্রুত সরে যাচ্ছে। বয়স হয়তো ২০/২১ বছরের বেশি হবে না। হয়তো তার লক্ষ্য ছিল, আমার স্ত্রীর পার্স ব্যাগটি।

দোকানদার ছেলেটি সেটা আগেই বুঝে ফেলেছিল। আর সে কারণেই সময়মত সতর্ক করেছিল, যা ওই ছেলেটিও শুনে ফেলায় দ্রুত স্থান ত্যাগ করে চলে যায়।

বুধবার বিকালে মতিঝিলের ঘটনা। গাড়িতে একজনকে পেলাম। বাড়ি দিনাজপুর। শ্রমজীবী মানুষ। একমাসের বেশি সময় কাজ করে জমানো টাকা নিয়ে বাড়ি যাওয়ার জন্য বের হয়েছিলেন।

যাত্রাবাড়ী থেকে গাবতলীর বাসে উঠেছেন। মতিঝিল আসার পর বুঝতে পারেন তার পকেট কেটে সব টাকা নিয়ে গেছে! বাসেই এই ঘটনা ঘটেছে নাকি তার আগেই হয়েছে সেটাও বুঝতে পারছেন না। বাড়িতে বউ, ছেলে-মেয়ের জন্য কী নিয়ে যাবেন? গাড়ির টিকিটই-বা করবেন কীভাবে? কিছুই বুঝে উঠতে না পেরে হাউ মাউ করে কাঁদছেন।

 

অনলাইনে খবর পড়লাম, সিলেট নগরীর দর্শন দেউড়ির এলাকায় অস্ত্রের মুখে এক নারীর স্বর্ণালঙ্কার নগদ টাকা ছিনিয়ে নিয়েছে দুর্বৃত্তরা। আর ছিনতাইয়ের দৃশ্যটি ধরা পড়েছে সিলেট সিটি করপোরেশনের ৪নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর রেজাউল হাসান কয়েস লোদীর লাগানো ক্লোজড সার্কিট (সিসি) ক্যামেরায়। রাস্তার উপর লাগানো একাধিক ক্যামেরায় ছিনতাইয়ের দৃশ্যটি ধরা পড়েছে বলে জানিয়েছেন কাউন্সিলর লোদী

তিনি জানান, বুধবার ভোরে দর্শনদেউড়ি ঘুর্ণি আবাসিক এলাকার ১৫নং বাসার মুহিবুর রহমানের স্ত্রী জেসমিন নাহার তার নাতনীকে নিয়ে আম্বরখানা শিশু স্কুলে যাচ্ছিলেন। দর্শনদেউড়িস্থ আম্বরখানা গার্লস স্কুলের সামনে আসার পর মোটরসাইকেলে আসা দুই ছিনতাইকারী অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে তার গলা থেকে স্বর্ণের চেইন হাতের চুড়ি এবং নগদ টাকা ছিনিয়ে নিয়ে পালিয়ে যায়। পরে রাস্তার উপর লাগানো সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে ছিনতাইকারীকে শনাক্ত করা হয়। 

মনে হচ্ছে, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী জঙ্গি দমনে অধিক মনোগোগী হওয়ায় পকেটমার আর ছিনতাইকারীরা বেপরোয়া হয়ে উঠছে। তাই নানা স্থানেই ঘটছে এমন ঘটনা। তাই পথ চলতে সাবধান হতে হবে আমাদেরকে। একই সাথে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের প্রতি অনুরোধ, এসব অপরাধীদের দ্রুত ধরার ব্যবস্থা করুন। তা নাহলে সাধারণ মানুষের জন্য রাস্তায় চলাচল করাটা বিপদজনক হয়ে উঠবে।

রিলেভেন্ট এই বিষয়গুলোর উপর ভিডিও দেখতে চাইলে সাবস্ক্রাইব করে রাখুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলটি – ঠিকানা – YouTube.com/Bangladeshism

আপনার মন্তব্য