বাংলাদেশ কি ভারতীয়দের অবৈধ অস্ত্রের বাজার?
November 2, 2016
Bangladeshism Desk (768 articles)
Share

বাংলাদেশ কি ভারতীয়দের অবৈধ অস্ত্রের বাজার?

হাসান শাহরিয়ার : গুলশানের হলি আর্টিজান রেস্তোরাঁয় জঙ্গি হামলার অস্ত্র এসেছিল ভারত থেকে। এছাড়াও এদেশে বিভিন্ন সময় যারা জঙ্গি হামলার ঘটনা ঘটিয়ে পার পেয়ে গেছে তারাও নাকি ভারতেরই কোথায় কোথায় লুকিয়ে রয়েছে।কিন্তু খুঁজে পাচ্ছে না ভারত সরকার।

এরই মধ্যে আবার দশটি অস্ত্রসহ  ভারতীয় অস্ত্র ব্যবসায়ী  খাইরুল মণ্ডল ওরফে শরীফুল মণ্ডল ওরফে শরীফুলকে  (৪১)  রাজধানীর গাবতলী এলাকা থেকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের একটি দল। গ্রেফতারের পরদিন তাকে আদালতে সোপর্দ করে ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন জানায় পুলিশ। আদালত শুনানি শেষে তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে।

কেন জানি মনে হচ্ছে, গুলশান হামলার পর আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর জঙ্গি দমন অভিযান চলাকালীন সময়ে ঢাকার উত্তরার এক খাল থেকে যে বিপুল পরিমাণ অস্ত্র ও গোলা-বারুদ উদ্ধার করেছিল সেগুলোও এসেছিল ভারত থেকে। কেননা, এদেশের দুষ্কৃতিকারীদের হাতে অস্ত্রের ভাণ্ডার তুলে দেওয়ার মতো এই ‘মহৎ’ কাজটি তারা ছাড়া আর কে করতে পারে!
ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের সহকারী কমিশনার মহররম আলী বলেন, ‘খাইরুল একজন বড় অস্ত্র ব্যবসায়ী। কয়েক সহযোগীসহ সে অস্ত্রগুলো ঢাকায় এনেছিল সন্ত্রাসীগ্রুপের কাছে বিক্রি করতে। কিন্তু গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অস্ত্রসহ খাইরুলকে গ্রেফতার করা হয়। অভিযানের বিষয়টি টের পেয়ে খাইরুলের সহযোগীরা পালিয়ে গেছে। তাদের গ্রেফতারে চেষ্টা চলছে।’
খাইরুলকে জিজ্ঞাসাবাদে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী জানতে পেরেছে, তার বাড়ি ভারতের পশ্চিমবঙ্গের উত্তর চব্বিশ পরগণার উপান নগরের সাতবাড়িয়া সুন্দরপুর এলাকায়। সে বেশ কয়েকবছর ধরে অবৈধভাবে সীমান্ত দিয়ে ঢুকে অবৈধ অস্ত্রের ব্যবসা করে আসছিল। যাশোরের পুটখালী এলাকায় সে বিয়েও করেছে। তার স্ত্রী উত্তর চব্বিশপরগণায় থাকে। বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করে সে শশুরবাড়িসহ বিভিন্ন এলাকায় অস্ত্র ব্যবসার পার্টনারদের সঙ্গে থাকতো। সর্বশেষ সে আড়াই মাস আগে অবৈধভাবে বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে বলে জিজ্ঞাসাবাদে জানিয়েছে।

আমাদের প্রশ্ন হলো, ভারত থেকে অস্ত্র ব্যবসায়ী খাইরুল মণ্ডল নিশ্চয়ই বৈধ পথে অস্ত্রের চালান নিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করেনি। অন্য দিকে, এতগুলো অস্ত্র নিয়ে অবৈধ পথে বাংলাদেশে প্রবেশ করলেন, অথচ কেউ কিছু অনুমান করতেও পারল না।এটা কি করে সম্ভব?

নাকি ভারতীয়রা মনে করে যে, বাংলাদেশ তাদের অবৈধ অস্ত্রের বাজার? আর সেকারণেই গরু পাচারকারীদের গুলি করে মারলেও অস্ত্রচোরাকারবারীদের নিরাপদে ট্রানজিট দিচ্ছে বিএসএফ?

আপনার মন্তব্য