১০ মিনিটের ডিজিটাল স্কুল
November 11, 2016
Bangladeshism Desk (768 articles)
Share

১০ মিনিটের ডিজিটাল স্কুল

তথ্য-প্রযুক্তির এ চরম উৎকর্ষতার যুগে সব কিছুই এখন ঘরে বসে পাওয়া যায় অনলাইনে। বাজার-সদাই থেকে শুরু করে জীবনের জন্য প্রয়োজন সবই এখানে মিলে। এমনকি শিক্ষার মতো মৌলিক প্রয়োজনও মিটানো যাচ্ছে অনলাইন থেকে।

অনলাইনে দূরশিক্ষণের ধারণা তো অনেক দিন আগে থেকেই আছে। বিশ্বের যে কোন খ্যাতনামা বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিগ্রিও এখন নেওয়া যায় ঘরে বসে। কিন্তু সেসবের জন্য টাকা লাগে। তবে আছে বিলকল্প উপায়ও। ফ্রি ভিডিও’র মাধ্যমে প্রয়োজনীয় শিক্ষা অর্জনের জন্য আমাদের এক বাংলাদেশি তরুণের প্রতিষ্ঠিত খান একাডেমির পরিচয় তো এখন বিশ্বজুড়ে।

তারই কাজে অনুপ্রাণিত হয়ে বাংলাদেশি আরেক তরুণ ফ্রি অনলাইন শিক্ষার জন্য স্থাপন করেছেন ১০ মিনিটের স্কুল। যা শিক্ষার্থীদের জন্য দারুণ কাজের বলেই মনে করছেন ব্যবহারকারীরা। আয়মান নামের তরুণের প্রতিষ্ঠিত টেনমিনিটস্কুলডটকম (10minuteschool.com) নামের ওয়েবসাইটটি থেকে ঘুরে আসতে পারেন আপনিও।


অষ্টম শ্রেণির জুনিয়র স্কুলসার্টিফিকেট (জেএসসি), মাধ্যমিকউচ্চমাধ্যমিক থেকে শুরু করে আইবিএ, মেডিকেল, প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়সহ বিভিন্ন সরকারিবেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার প্রস্তুতির জন্য সহস্রাধিককুইজপরীক্ষার প্রশ্ন পাওয়া যাবে এখানে। যে পরীক্ষা দিতে চান, ক্লিক করলেই সে বিষয়ের ওপর নির্ধারিত কিছু প্রশ্ন চলে আসবে পর্দায়। ১০ মিনিটের মধ্যে নির্ধারিত সংখ্যক নৈর্ব্যক্তিক প্রশ্নের উত্তর দিতে হবে। সময় শেষ হলে অথবা সব প্রশ্নের উত্তর দেওয়া হয়ে গেলে পেয়ে যাবেন ফলাফল। যাঁরা এই পরীক্ষায় অংশ নিয়েছেন, তাঁদের মধ্যে পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারীর অবস্থান কত, তা সঙ্গে সঙ্গেই বলে দেবে ওয়েবসাইটটি। বিসিএস, ব্যাংক বা সরকারি চাকরির নিয়োগ পরীক্ষার প্রস্তুতির পাশাপাশি আইইএলটিএস, স্যাট, জিআরই, জিম্যাট, টোফেলের জন্যও আছে ভিন্ন ভিন্ন কুইজ

ওয়েবসাইটে সব বিষয়ের প্রস্তুতির জন্যটিউটোরিয়ালইনফো গ্রাফিক’-এর ব্যবস্থা রয়েছে। আইবিএ থেকে সদ্য স্নাতক পেরোনো আয়মান জানান, ‘মূলত আমি নিজে অনেক কিছুই শিখেছি খান একাডেমির ভিডিও দেখে। সেখান থেকেই ধারণা পেলাম, আমাদের শিক্ষার বিষয়গুলোও সহজভাবে উপস্থাপন করা যায় কি না। এখন পর্যন্ত মোট দুই শর বেশি টিউটোরিয়াল হাজার ৪৩টি কুইজ আমাদের ওয়েবসাইটে দেওয়া হয়েছে। প্রতিনিয়ত এই সংখ্যা বাড়ছে এবং বাড়বে। ছাড়া যেকোনো বিশ্ববিদ্যালয়ের যেকোনো ধরনের তথ্য, কত পয়েন্ট থাকলে পরীক্ষা দেওয়া যাবে কিংবা কোন বিভাগের আসনসংখ্যা কতএই সবকিছুইনফোগ্রাফিকসআকারে দেওয়া হয়েছে এই ওয়েবসাইটে।

যারা শহর কিংবা উন্নত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ভর্তি না হতে পেরে গ্রামের অপেক্ষাকৃত দুর্বল প্রতিষ্ঠানে পড়াশোনা করছে তাদের জন্য এটা একটা খুবই কার্যকরী মাধ্যম হতে পারে। কেননা ১০ মিনিটের স্কুলে যারা ক্লাসগুলো নিচ্ছেন তারা সবাই ঢাবি, বুয়েটসহ ভালোমানের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের মেধাবী ছাত্রছাত্রী।

অতএব, তাদের ভিডিও ক্লাসগুলো আমাদের শিক্ষা ব্যবস্থার গলদ এড়িয়ে ভালো মানের টিচিং পৌঁছে দিতে পারে গ্রামের একটি দুর্বল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীর ঘরেও।

সত্যিই উদ্যোগটি আগামীর বাংলাদেশ গঠনের পক্ষে অত্যন্ত সুন্দর এবং কার্যকর বলেই মনে করছি। ধন্যবাদ এই সুন্দর উদ্যোগের সাথে যারা আছেন তাদেরকে।

রিলেভেন্ট এই বিষয়গুলোর উপর ভিডিও দেখতে চাইলে সাবস্ক্রাইব করে রাখুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলটি – ঠিকানা – YouTube.com/Bangladeshism

আপনার মন্তব্য