ট্রাম্পের আবার প্রটোকল!

33
SHARE

ট্রাম্প নাকি প্রটোকল ভেঙেছেন। আর তাই নিয়ে হৈ চৈ হচ্ছে মার্কিন গণমাধ্যমগুলোতে। তো তিনি কি প্রটোকল ভেঙেছেন?

গণমাধ্যমের খবরে বলা হচ্ছে, যুক্তরাষ্ট্রের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প গণমাধ্যমকে না জানিয়ে ট্রাম্প টাওয়ার থেকে বেরিয়েছেন।আর সেটা নাকি তাদের দেশের জন্য নিয়ম বহির্ভূত ঘটনা। তাই নিয়ে হৈ চৈ!

নিয়ম অনুযায়ী প্রেস উইংকে অবহিত করে বাসা থেকে বাইরে যাওয়ার কথা যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টের। কিন্তু তা না করে বর্তমান আবাসিকস্থল ট্রাম্প টাওয়ার থেকে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বাইরে বের হন। আর নিয়ে তার বিরুদ্ধে প্রটোকল ভাঙার অভিযোগ উঠেছে

বুধবার (১৬ নভেম্বর) আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলো এক খবরে জানায়, প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ট্রানজিশন দল, সাংবাদিক ফটোগ্রাফারদের জানিয়েছিলো সন্ধ্যায় প্রেসিডেন্ট কোথাও যাবেন না। কিন্তু এরই দুই ঘণ্টার কম সময় পর ট্রাম্প টাওয়ার থেকে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প গাড়িবহর নিয়ে ম্যানহাটন শহরেরটোয়েন্টি ওয়ান ক্লাবেরাতের খাবার খেতে যান

খবর পেয়ে সাংবাদিক  ফটোগ্রাফাররা সেখানে পৌঁছালে তাদের ক্লাবের ভেতর ঢুকতে দেওয়া হয়নি

আচ্ছা, যে লোকটা কর ফাঁকি দেওয়াকে আইনের সুযোগ নেওয়ার দক্ষতা বলে মনে করে, কিংবা যে লোকটা যৌথ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে নিজে কম বিনিয়োগ করার পরও নানা ফাঁকফোকর দিয়ে টাকা সরিয়ে প্রতিষ্ঠানকে দেউলিয়া ঘোষণা করে পার্টনারদে বঞ্চিত করাকেও ব্যবসায়িক কৌশল মনে করে, কিংবা যে লোক সকালে এক কথা বলে বিকালেই তা আবার অস্বীকার করতে পারে তার জন্য মিডিয়াকে না জানিয়ে হোটেলে খেতে যাওয়াটা কোনো ব্যাপার?

এটা নিয়ে এত হৈ চৈ করার কী আছে সেটাও তো বুঝতে পারছি না। তা ছাড়া ট্রাম্প তো তার এসব বৈশিষ্ট্য নির্বাচনের আগেও লুকিয়ে রাখেননি। বরং আমেরিকার জনগণ সবকিছু জেনেই তাকে নির্বাচিত করেছে।  

তাছাড়া ট্রাম্পের নারী কেলেঙ্কারি, মিডিয়াবিরোধী মনোভাব, বর্ণবাদী মানসিকতার মতো কোনো গুণই মার্কিন মিডিয়ার কাছে লুকায়িত নেই। সেখানে এই সামান্য ঘটনা তেমন কিছু না, বরং মার্কিন মিডিয়া সামনে আরও বড় কিছু দেখার অপেক্ষায় থাকতে পারে। কেননা ট্রাম্প যে নিয়ম-নীতির গণ্ডি ভাঙাকেই তার ব্যবসায়িক, এমনকি রাজনৈতিক সফলতা হিসেবেও প্রমাণ করেছেন ইতোমধ্যে।

তিনি যে ভদ্র ছেলের মতো নিশ্চুপ থাকবেন না কিংবা নিয়ম-কানুনের বালাইকে থোড়াই কেয়ার করবেন তাতে কি কোনো সন্দেহ আছে?

রিলেভেন্ট এই বিষয়গুলোর উপর ভিডিও দেখতে চাইলে সাবস্ক্রাইব করে রাখুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলটি – ঠিকানা – YouTube.com/Bangladeshism

আপনার মন্তব্য