মৃত্যু ভয়ে হেলমেট মাথায় অফিস করছেন কর্মকর্তা-কর্মচারীরা!
December 1, 2016
Bangladeshism Desk (766 articles)
Share

মৃত্যু ভয়ে হেলমেট মাথায় অফিস করছেন কর্মকর্তা-কর্মচারীরা!

কোনো কোনো ক্ষেত্রে হয়তো এমন দেখা যায় যে, পরিত্যাক্ত ভবনেই জীবনের ঝুঁকি নিয়ে বসবাস করছেন মানুষ, কিংবা অফিস করার কথাও শোনা যায়। তাই বলে ছাদ ধ্বসে পড়ার ভয়ে হেলমেট মাথায় দিয়ে অফিস করার খবর আগে কেউ শুনেছেন? তাও আবার সরকারি অফিস!

অবাক হওয়ার মতো ঘটনা হলেও এটি সত্যিই ঘটেছে বাঘেরহাটে। মোটরসাইকেল আরোহীরা বড় ধরনের দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পেতে মাথায় যেমন হেলমেট ব্যবহার করে থাকেন, তেমনি জীবন বাঁচাতে বাধ্য হয়ে হেলমেট মাথায় দিয়ে অফিস করছেন বাগেরহাটে জরাজীর্ণ জেলা রেজিস্ট্রার অফিসের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা!

আরও অবাক করার বিষয় হচ্ছে, বাগেরহাট আদালত ভবনটি গণপূর্ত বিভাগ কর্তৃক ব্যবহারের পরিত্যক্ত ঘোষণা করা হলেও নতুন ভবনের জন্য জমি বরাদ্দ বা নিজস্ব কোনো ভবন না থাকায় বাধ্য হয়ে ১৯৯৭ সালে থেকে ঝুঁকিপূর্ণ এ ভবনেই অফিসের কাজ করে যাচ্ছেন জেলা রেজিস্ট্রার।

নানা রকম দেনদরবারের পরেও নাকি নতুন কোনো ভবনে অফিসটি স্থানান্তর করা যাচ্ছে না কোনো এক অদৃশ্য কারণে!

কিন্তু প্রশ্ন হলো, সরকারি অফিসের এই দশা হলে বাকিদের অবস্থা কী হবে? তাছাড়া, কর্মকর্তা-কর্মচারীরা না হয় হেলমেট পরে অফিস করছেন, কিন্তু সেবা গ্রহীতারা তো আর সবাই হেলমেট পরে আসছেন না। এই অবস্থায় দিনের বেলায় সত্যিই যদি সেবাগ্রীতাদের মাথার উপরই ছাদ ভেঙ্গে পড়ে তাহলে কী দশা হবে?

আর সত্যি সত্যি যদি ছাদ ধ্বসে পড়ে তাহলে হেলমেট দিয়ে না হয় মাথা বাঁচানো যাবে, কিন্তু কর্মকর্তা-কর্মচারীরা সারা শরীর অক্ষত রাখবেন কী করে?

আসলে এক মুহুর্তের জন্যও এমন একটি ঝুঁকিপূর্ণ ভবনে সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীরা অফিস করেন সেটাও কাম্য নয়। কেননা, তারা মানুষের সেবা দান করার জন্য অফিস করছেন। কিন্তু মাথায় যদি ছাদ ধ্বসে পড়ে মৃত্যুর ভয় থাকে তাহলে নিশ্চিন্ত মনে সেবা দিবেন কী করে?

তাছাড়া, তারা নিজেরা যেমন ভয়ে থাকছেন তেমনি পরিবার-পরিজনরাও তো তাদের নিয়ে দুঃশ্চিন্তায় থাকছেন, তাই না?

অতএব, সংশ্লিদের প্রতি আমাদের আহ্বান যত দ্রুত সম্ভব অফিস অন্যত্র স্থানান্তর করুন। নিজেরা নিরাপদ থাকুন, নিরাপদ রাখুন সেবাগ্রহীতাদের।

Latest Video Release

বাংলাদেশের টাইগারদের উৎসর্গ করে বাংলাদেশীজম প্রজেক্ট তৈরী করেছে একটি বিশেষ ভিডিও। নীচে ভিডিওটি দিয়ে দিলাম। দেখে ফেলুন

আপনার মন্তব্য