বাংলাদেশকে উসকানোর চেষ্টা করছে মিয়ানমার

36
SHARE

মিয়ানমার তাদের রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গাদের ওপর চলমান হত্যা-নির্যাতনের দিক থেকে বিশ্ব মিডিয়ার দৃষ্টি ঘোরানোর চেষ্টা করছে। আর সে জন্য অপকৌশলের আশ্রয় নিচ্ছে বলেই মনে হয়।

তারা একদিকে রোহিঙ্গাদের ওপর অত্যাচার করে বাংলাদেশের দিকে পালাতে বাধ্য করছে। অপর দিকে বাংলাদেশের জেলেদের ধরে নিয়ে গিয়ে নির্যাতন করছে। কখনো আবার জেলেদের জাল-নৌকা আটক করে নিয়ে যাচ্ছে।

এগুলো নিশ্চয়ই কোনো সুপ্রতিবেশীর লক্ষণ নয়, বরং এসবের মাধ্যমে তারা বাংলাদেশকে উসকানি দিচ্ছে বলেই মনে হচ্ছে। বাংলাদেশ তাদের ফাঁদে পা দিয়ে পাল্টা কোনো পদক্ষেপ নিলে মিডিয়ার দৃষ্টি সে দিকেই ঘুরে যাবে, চাপা পড়বে রোহিঙ্গা ইস্যু। সম্ভবত এটাই তাদের কৌশল।

সর্বশেষ ঘটনায় জানা গেছে, কক্সবাজারের টেকনাফে হোয়াইক্যংয়ের লম্বাবিল সংলগ্ন নাফনদী থেকে দুই জন বাংলাদেশি জেলেকে ৭ ডিসেম্বর বুধবার অপহরণ করেছে মিয়ানমারের বর্ডার গার্ড পুলিশ (বিজিপি)।

অপহৃত জেলেরা হলেন, হোয়াইক্যং ইউনিয়নের লম্বাবিলের গ্রামের বাসিন্দা আবুল কাশেমের ছেলে মো. নাজির হোসেন ভুলু (৪২) ও সৈয়দ আলীর ছেলে আব্দুস শুক্কুর (৩৯)।

জেলেদের স্বজনরা জানিয়েছেন, ঘটনার দিন ভোরে ওই দুই জেলে প্রতিদিনের মতো নাফ নদীতে মাছ শিকার করতে যায়। মাছ শিকার অবস্থায় দুপুরে দিকে বিজিপির একটি টহল বোট কাছে এসে অস্ত্রের মুখে তাদের অপহরণ করে নৌকাটি টেনে নিয়ে যায়।

আসলে মায়ানমারের এসব উসকানিমূলক কর্মকাণ্ড বন্ধে উপযুক্ত জবাব দেওয়া দরকার।

কেননা, গত কয়েকদিন আগেও তারা ৬ জন জেলে এবং তাদের জাল-নৌকা আটক করে নিয়ে গিয়েছিল।

তাছাড়া বিনা কারণে বাংলাদেশ বর্ডার গার্ড বাহিনীর ওপর হামলা চালানোর রেকর্ডও তাদের আছে। এমনকি বাংলাদেশের সীমান্তরক্ষী এক সদস্যকে হত্যা করে লাশ নিয়ে যাওয়ার স্পর্ধাও দেখিয়েছিল তারা।

এসব ধৃষ্টতার সমুচিত জবাব না দেওয়ায় তাদের সাহস এবং বেয়াদবির মাত্রা দিন দিন বেড়ে যাচ্ছে। তাই তাদেরকে আর ছাড় দেয়া ঠিক হবে না। আমাদের দেশ এবং দেশের নাগরিকদের নিরাপত্তা আমাদেরকেই নিশ্চিত করতে হবে।

অন্যদিকে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে কূটনৈতিক প্রচেষ্টার মাধ্যমে রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানেও মায়ানমারকে বাধ্য করতে হবে।

Latest Video Release

বাংলাদেশের টাইগারদের উৎসর্গ করে বাংলাদেশীজম প্রজেক্ট তৈরী করেছে একটি বিশেষ ভিডিও। নীচে ভিডিওটি দিয়ে দিলাম। দেখে ফেলুন

আপনার মন্তব্য