চন্দনপুরা মসজিদ

3634
SHARE

বন্দর নগরী চট্টগ্রামের চকবাজার ও আন্দরকিল্লার সংযোগকারী নবাব সিরাজ উদ-দৌলা সড়কের চন্দনপুরা অংশে অবস্থিত।

মাস্টার হাজী আব্দুল হামিদ এই মসজিদটি প্রতিসটা করেন বলে তাঁর নামানুসারে এই মসজিদের নামকরন করা হয়েছে- “হামিদিয়া তাজ মসজিদ”

বাংলায় মোঘল শাসনামলে এই দৃষ্টিনন্দন স্থাপত্য শিল্পের ভিত্তিপ্রস্তর করা হয়েছে বলে ধারনা করা হলেও মুলত বৃটিশ শাসনামলে ১৯৫৭ সালে মোঘল স্থাপত্য ঘরনায় মসজিদটির সংস্কার কাজ শুরু হয় এবং তা সম্পন্ন হয় ১৯৫২ সালে।

এই মসজিদে সর্বমোট ১৫টি গম্বুজ রয়েছে। মসজিদের বড় গম্বুজটি তৈরি করতে প্রায় ১৫ টন পিতল লেগেছিল বলে এক তথ্যে জানা যায়।

অতীত ঐতিহ্যের নিদর্শনের মধ্যে দৃষ্টিনন্দন কারুকার্যময়, শৈল্পিক মানসম্পন্ন হওয়ায় এই মসজিদের খ্যাতি দেশে-বিদেশে।

চট্টগ্রামের পরিচিতি গাইড-এ চন্দনপুরা মসজিদের ছবি বিশেষভাবে স্থান পেয়েছে, তাছাড়া জাপানের এশিয়া ট্রাভেলস ট্যুর ম্যাগাজিনের প্রচ্ছদে এই মসজিদের ছবি ছাপানো হয়েছে।

বিদেশী পর্যটকদের অন্যতম আকর্ষণ হলো এই মসজিদ। প্রতিদিন বহু পর্যটক এখানে আসেন এই ঐতিহাসিক মসজিদটির সৌন্দর্য ও অপূর্ব নির্মাণশৈলী দেখার জন্য।

বর্তমানে পরিবেশের বিরূপ প্রভাবের কারনে বিশেষত বায়ু দূষণের ফলে এই দৃষ্টিনন্দন স্থাপণাটি বাহ্যিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এরপরও এই চন্দনপুরা মসজিদটি দাড়িয়ে আছে তার মোগল ঐতিহ্যের সাক্ষ্য নিয়ে।

এমন একটি সুন্দর মসজিদ দেখতে হলে আপনাকে চট্টগ্রাম আসতে হবে।

আপনার মন্তব্য