আবারো জার্মানীতে সন্ত্রাসী হামলা ! !

386
SHARE

সন্ত্রাসী হামলা যেন প্রতিদিনকার ব্যাপার হয়ে গেছে। একটু আগে আবারো জার্মানীর মিউনিখের একটি শপিং কমপ্লেক্সে সন্ত্রাসী হামলা হয়েছে। এবং বন্দুকধারীরের গুলিতে বেশ কয়েকজন মারাও গিয়েছে (সুত্র – CNN)। এই মুহুর্তে পুরো শহরে সতর্কতা জারি করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত কোন সন্ত্রাসী গোষ্ঠী এই হামলার দায় স্বীকার করেনি। কিছুদিন আগেও জার্মানীতেই ট্রেনের ভেতর কুড়াল নিয়ে এক আইএস জঙ্গী হামলা করে।

জার্মানীকে মুসলমানদের বন্ধু হিসেবেই দেখা হয়। এ পর্যন্ত সারা বিশ্বে যত মুসলিম রিফিউজি ছিল তার সবচাইতে বেশী স্থান পেয়েছে জার্মানীতে। খুব সুনিপুনভাবে সন্ত্রাসী গোষ্ঠী গুলো পৃথিবীতে মুসলিমদের নামে একটা চরম বিদ্বেষ তৈরী করছে আর ইসলাম ধর্মকে কলঙ্কিত করার চেষ্টা করেই যাচ্ছে। কারা যেন পুরো বিশ্বে একটা যুদ্ধ চাপিয়ে দেয়ার চেষ্টা করছে। কোথায় যাবে মুসলমানরা? এখন তো মুসলিম বললেই সবাই ভয় পায় – যে দেশেই যাক না কেন? মুসলিমদের নিজেদের দেশগুলো তো যুদ্ধ বিদ্ধস্ত করে দেয়া হয়েছে অনেক আগেই। এখন অন্যান্য দেশে যেসন মুসলিমরা থাকে তাঁদের জীবনও দুর্বিষহ করে ফেলা হচ্ছে। কদিন পরে ইউরোপ-আমেরিকা এমনকি এশিয়া ভ্রমনও মুসলমানদের জন্য হারাম হয়ে যাবে। সবকিছুই  বড় কোন ধরনের চক্রান্ত বলেই মনে হচ্ছে। কদিন আগে ইসলামের নাম দিয়ে প্যারিসে গাড়ি চাপিয়ে মেরে ফেলা হলো ৮৪ জন মানুষ। তার আগে ২২ জনকে জবাই করে হত্যা করল বাংলাদেশে। কোথায় যাচ্ছে আমাদের পৃথিবী? মুসলমানদেরকে এত সুনিপুনভাবে ধ্বংস করে কার কি লাভ?

ইসলামের নাম বিক্রি করে এসব সন্ত্রাসী গোষ্ঠী পুরো মুসলমান সম্প্রদায়কে একটা হুমকির মুখে ফেলে দিয়েছে। আমেরিকার ইরাক আক্রমনের পর থেকে এ ধরনের সংগঠনগুলো আরও ক্ষমতাশীল হচ্ছে। এদের স্পন্সর কারা করছে। উন্নত দেশগুলো চাদে, অন্য গ্রহে অভিযানে যায়, এত উন্নত সবকিছু, এত ক্ষমতা আর তারা এতদিন ধরে এদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করেও কিছু করতে পারেনি? ব্যাপারটা কি সেকেলে মনে হয় না? যুদ্ধে কার লাভ? মনে হচ্ছে আরেকটা বিশ্বযুদ্ধ বাধিয়ে দেয়ার তাল পেয়ে বসেছে সবার। খুব সম্ভব মুসলমানদের জন্য আরও খারাপ দিন ঘনিয়ে আসছে। যতদিন পর্যন্ত এসব জঙ্গী গোষ্ঠীর সমূল সহ ধ্বংস হবে না ততদিন পর্যন্ত পৃথিবীতে একজন মুসলমানও নিরাপদ না। হয়তো এমন অবস্থা হয়ে যাবে যে সামনে পৃথিবীর অর্ধেকের বেশী মুসলমান শেষ হয়ে যাবে আর যারা বাকী থাকবে তাঁদের পৃথিবীর এক কোনায় আটকে রাখা হবে। মুসলমান দেশ বলতেই ভবিষ্যতে আর কিছু থাকবে না।

ধর্মের নাম করে মানুষ হত্যা করা কোন ধর্ম কর্ম না। এগুলো সব বিজনেস প্ল্যান। সব আন্তর্জাতিক কন্সপিরেসি। আর এসবের কারনে আসলে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে সব ধর্মের মানুষ। অবাধে মরছে সাধারন মানুষ। হামলা উন্নত দেশেও হচ্ছে, গরীব দেশেও হচ্ছে। কেন তাহলে? যত দিন ঘনিয়ে আসছে, ততই আমাদের মুসলমানদের বারটা বাজছে। আর এসবের মূল কারন গুলো হলো এসব ধর্মের দোহাই দিয়ে গড়ে ওঠা সব সন্ত্রাসী গোষ্ঠী।

আপনার মন্তব্য