আমাদের মুস্তাফিজকে রক্ষা করা উচিত নয় কি?

1310
SHARE

বাংলাদেশের গর্ব, বিশ্ব ক্রিকেটের ওয়ান্ডার বয় মুস্তাফিজ রহমান। এদেশে এমন কেউ নেই যিনি চিনেন না আমাদের মুস্তাফিজকে। ক্রিকেট বিশ্বে যাকে ডাকা হয় মিস্টার ফিজ নামে। অল্প বয়সে দেশের জন্যহ অনেক বিরল সম্মান এনে দিয়েছেন। ক্রিকেট বিশ্বে তাকে নিয়ে এখন চলে টানা হেচড়া। সেটি হোক জাতীয় দল বা কোন প্রিমিয়ার লিগ – মুস্তাফিজকে সবার চায়ই চায়। একের পর টুর্নামেন্টের পর মুস্তাফিজ যারপরনাই একটু হয়তো ক্লান্ত। আমরা কি আমাদের দেশের এই গর্বকে একটু Exhausted করে ফেলছি না খুব বেশী খেলিয়ে?

কিছুদিন আগে আইপিএল এর সময় মুস্তাফিজ ইনজুরীতে পড়েছিলেন। ঠিক হতে না হতেই এখন ইংল্যান্ডের কাউন্টিতে। এখন আবারো চোট পেয়েছেন সম্ভবত নতুন ধরনের কোন বলিং চেষ্টা করতে গিয়ে। জানি, এসব টুর্নামেন্ট তার শেখার এবং ক্যারিয়ারের জন্য খুব পজিটিভ, তাও, তার তো সামনে বিশাল সময় পড়ে আছে। তাকে কি ক্লান্ত করে দেয়া হচ্ছে না? কথাগুলো বলছি আসলে একটা উদ্বেগ থেকে। আমরা মুস্তাফিজকে আরো বড় করে দেখতে চাই। চাই না, ক্যারিয়ারের শুরুতে বা মাঝপথে ইনজুরীতে পড়ে তার কোন ক্ষতি হোক। বলা যায় না, বিদেশী এসব দেশ না জানি কবে মুস্তাফিজকে ইচ্ছাকৃতভাবে ইঞ্জুরীতে ফেলে। কারন সে তো দেশের জাতীয় সম্পদ। তার ভয়ে সব দেশের ব্যাটসম্যানর পিচে থর থর করে কাঁপে। তার প্রতিটি বল কোনটা কেমন হবে এটা একেবারেই আনপ্রেডিক্টেবল। এবং ক্রিকেটে এটা অনেক বড় একটা অস্ত্র। আর এমন সম্পদকে সবাই পেতে চাইবে আর না পেলে হয়তো অন্যকিছু করার চেষ্টা করবে।

এমনিতেই বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের উপর মোড়লদের মাতব্বরীর অভাব হয় না। ভারত, ইংল্যান্ড বা অস্ট্রেলীয়া – বড় বড় ক্রিকেট খেলুড়ে দেশগুলো বাংলাদেশকে মনে হয় একটু বাকা চোখেই দেখে। যেন উঠতেই দিতে চায় না ক্রিকেটে। বাংলাদেশ যে ক্রিকেটে একটি পরাশক্তি হতে চলেছে একথা ঠিকই সবাই বুঝতে পারে। আর সেই পরাশক্তি হতে মুস্তাফিজ হতে পারে অন্যতম হাতিয়ার। এটাও সত্যি, নান ধরনের টুর্নামেন্ট খেলে, নানা কন্ডিশনে খেলে তার অভিজ্ঞতাটাও অনেক বেশী গুরুত্বপূর্ন। একজন খেলোয়াড় না খেলে কি করবে? কিন্তু তাও হয়তো তার উপর একটা চাপ কমানো যেতে পারে। তাকে হয়তো একটু রেস্ট দেয়া যেতে পারে। বয়স তার অল্প। সামনে অনেক সময়। অনেক দিন তাকে খেলতে হবে। তাকে প্রটেক্ট করা তো আমাদের দেশেরই দায়িত্ব তাই না? আপনারা কি মনে করেন এ ব্যাপারে?

আপনার মন্তব্য