মানব ইতিহাসের নৃশংস খুনি

7895
SHARE

মানব জন্মের ইতিহাসের মতই আমাদের এই পৃথিবীতে খুনের ইতিহাসও সমৃদ্ধ। পৃথিবীর নৃশংসতম হত্যাযজ্ঞ নিয়ে অনেক চলচ্চিত্রও নির্মান করা হয়েছে। চলচ্চিত্র গুলোতে দেখান হয়েছে এই কুখ্যাত খুনিদের নৃশংস হত্যাকাণ্ড যা তারা করে থাকে নিরাপরাধ/নির্দোষ মানুষদের উপর। পৃথিবীর এইরকম নৃশংস ও কুখ্যাত খুনিদের নিয়ে একটি তালিকা নিচে আলোচনা করা হল।

লুইস গারাভিতো

garavito-y-sus-armas

পৃথিবীর ইতিহাসে অন্যতম কুখ্যাত খুনি এই লুইস গারাভিতো। সন্দেহ করা হয় সে প্রায় ৪০০ জনের উপরে মানুষ খুন করেছিল। কিন্তু তাঁর বিরুদ্ধে প্রমাণ হয়েছিল ১৩৮ জনের খুনের অপরাধ। গারাভিতোর খুনের মধ্যে বেশির ভাগই ছিল পথশিশু। ১৯৫৭ সালের ২৫শে জানুয়ারি জন্মগ্রহণ করে এই কুখ্যাত খুনি এবং ১৯৯০ সালেই তাঁর জীবনের সবচেয়ে বেশি খুন সম্পন্ন করেন।

কলম্বিয়া আইন অনুযায়ী তাঁর সর্বচ্চ ৩০ বছরের সাজা হয়। পরবর্তীতে লাশ শনাক্ত করতে পুলিশকে সহায়তা করার জন্য তাঁর সাজা কমিয়ে ২২ বছর করে দেয়া হয়। তাঁর এই সাজায় সারা বিশ্বের গণমাধ্যমে উত্তেজনা ছড়িয়ে পরে। কলম্বিয়ার জনগণ তাঁর জন্য আলাদা প্রসিকেউশন গঠন করার দাবি জানায়। কলম্বিয়াতে লুইস গারাভিতো  “La Bestia” (পশু) নামে পরিচিত।

জ্যাক দ্য রিপার

জ্যাক দ্য রিপার হল এক অজ্ঞাত-পরিচয় ক্রমিক হত্যাকারীর সর্বাধিক পরিচিত নাম। ধারনা করা হয় ১৯৮৮ সাল থেকে ১৯৯১ সাল পর্যন্ত যুক্তরাজ্যের রাজধানী লন্ডন শহরের হোয়াইটচ্যাপেল ডিস্ট্রিক্ট ও তৎসংলগ্ন এলাকায় এই খুনি সক্রিয় ছিল। হোয়াইটচ্যাপেল এর আশপাশ জুড়ে সর্বমোট এগারটি খুনের ঘটনা ঘটিয়ে তোলপাড় ফেলে দিয়েছিল এই কুখ্যাত খুনিজ্যাক দ্য রিপার নামে কখনো কোনো লোক ছিল কিনা এ সম্পর্কেও নিশ্চিত হওয়া যায়নি। জনৈক ব্যক্তি একটি চিঠিতে নিজেকে হত্যাকারী বলে দাবি করেছিল। গণমাধ্যমে প্রচারিত এই চিঠিটিতেই “জ্যাক দ্য রিপার” নামটি প্রথম পাওয়া যায়।

জ্যাক দ্য রিপার কৃত যে হত্যাকাণ্ডগুলির কথা জানা যায়, সেগুলিতে সাধারণত ইস্ট এন্ড অফ লন্ডনের বস্তি এলাকার অধিবাসী ও সেই এলাকায় কর্মরত নারী যৌনকর্মীরা জড়িত ছিল। রিপার যৌনকর্ম করার সময় ভিক্টিমকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করত। এদের গলার নলি কেটে হত্যা করার পর পেট চিরে ফেলা হত। অন্তত তিন জনের ক্ষেত্রে দেখা গিয়েছিল শরীরের অভ্যন্তরের অন্ত্রগুলি কেটে বা দেওয়া হয়েছিল। এই দেখে অনুমান করা হয়, হত্যাকারীর শারীরতত্ত্ব বা শল্যচিকিৎসা-সংক্রান্ত কিছু জ্ঞান ছিল

কে ছিল এই জ্যাক দ্য রিপার এবং সত্যিকার অর্থে সে কতজন খুন করেছে তা কখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

পেদ্রো লোপেজ

pedro

পেদ্রো লোপেজ হল কলম্বিয়ান কুখ্যাত সিরিয়াল কিলার। তাঁর প্রকৃত খুনের হিসাব আজ পর্যন্ত নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তবে তাকে ৮০ জন মেয়ের প্রাণনাশ করার দায়ে সাজা দেয়া হলেও ধারনা করা হয় প্রায় ৩০০ এর মত মেয়ের সাথে যৌন নির্যাতন এবং পরবর্তীতে তাঁদের নৃশংসভাবে হত্যা করে এই কুখ্যাত খুনি। সে সর্বপ্রথম মিডিয়াতে আলোচিত হয় ১৯৮০ সালের ৯ মার্চ।

অনেকের মতে সে ধর্ষণের পর ভিক্টিমকে জবাই করত তারপর তাঁর রক্ত দিয়ে হাত ধুতো। পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। এবং তাঁর ১৬ বছরের কারাদণ্ড হয়। জেলখানায় ভাল ব্যবহার করার ফলে তাঁর ২ বছরের সাজা মওকুফ করে দেয়া হয়।

রিচার্ড ট্রেনটন সেচ  

richard

রিচার্ড সেচ হল আমেরিকান সিরিয়াল কিলার। এই সিরিয়াল কিলার এর জন্ম ১৯৫০ সালে। তার নৃশংস হত্যাকাণ্ডগুলোর জন্য তাকে “ভেম্পায়ার অব স্ক্যারামেন্ট” নামেও অবিহিত করা হত। রিচার্ড তার প্রথম শিকার করে ৫১ বছর বয়সী ইঞ্জিনীয়ার এমব্রোস গ্রিফিন নামক ব্যক্তিকে। তার দ্বিতীয় শিকার টেরেসা ওয়ালিন ছিল অন্তঃসত্ত্বা। তাকে হত্যার পর তার সাথে মিলিত হয় এবং তার রক্ত দিয়ে গোসল করে।

১৯৮০ সালের ৮ মে বিচারে তাকে মৃত্যুদণ্ড দেয়া হয়। কারাগারে অপেক্ষাকালিন সময় ১৯৮০ সালের ২৬শে ডিসেম্বর সেলে তাকে মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়। ধারনা করা হয়, প্রিজন ডাক্তার এর ঔশুধ অতিরিক্ত খেয়ে সে আত্মহত্যা করে।

জেফরি ডামার

dahmerজেফরি ডামার হল একজন মার্কিন মানুষখেকো খুনি। জেফরির জন্ম ১৯৬০ সালে। ১৯৭৮ সাল থেকে ১৯৯১ সাল পর্যন্ত ১৭টি নৃশংস হত্যাকাণ্ড ঘটায়। ডামার তার শিকারকে জোরপূর্বক সমকামিতায় বাধ্য করাসহ তাদের অঙ্গ প্রত্যঙ্গ বিচ্ছিন্ন করে সেই মাংস ভক্ষণ করত। ১৯৮০ সালে ১৩ বছরের এক বালককে হয়রানির জন্য তাকে ১ বছরের সাজা দেয়া হলে সে বিচারকের কাছে সব দোষ স্বীকার করে এবং তাকে মেন্টাল থেরাপি দেয়ার অনুরধ করে।

১৯৯১ সালে সালের ডিসেম্বরে ডামার পুনরায় পুলিশের কাছে ধরা পরলে তার কুকীর্তিগুলো প্রকাশিত হয়ে পরে। বিচারে তার ৯৩৭ বছরের জেল হয়। বিচারকালে ডামার তার কারাবাসের পরিবর্তে নিজের মৃত্যুদণ্ডের দাবি করে।  ১৯৯৪ সালের ২৮ নভেম্বর কারাগারের জিমে কর্মরত অবস্থায় ক্রিস্টোফার স্কেভার নামক আরেক কয়েদির মারাত্মক পিটুনিতে নিহত হয়।   

আপনার মন্তব্য