নর্থসাউথ বিশ্ববিদ্যালয় – শিক্ষিত জঙ্গীর উৎস ?

31766
SHARE

বার বার নর্থসাউথের নাম উঠে আসছে জঙ্গী ইস্যুতে। ঢিল মারলেই যেন বের হচ্ছে নর্থসাউথের কোন না কোন ছাত্র জঙ্গী কর্মে লিপ্ত। কিছুদিন আগ প্রো-ভিসিকেও গ্রেফতার করা হয় একই ইস্যুতেই। সেই হাসনাত করিমও কিন্তু এক সময় নর্থসাউথের ফ্যাকাল্টি ছিল। আর কল্যানপুর অভিযানেও মরেছে নর্থসাউথে পড়া লেখা করা এলিট ফ্যামিলির জঙ্গী। গুলশান হামলার কথা বাদই দিলাম। এসবকিছু কিসের সিগ্ন্যাল দিচ্ছে? অবশ্যই নর্থসাউথের সব শিক্ষার্থীরাই জংগী না।

এখন একটা কনফিউশন হয়তো অচিরেই উঠে আসবে। সেটি হলো – শুধু মাত্র নিখোজরাই কি জঙ্গী? এমন কি গ্যারান্টি আছে যে কেউ একজন নিখোজ না কিন্তু জংগী হয়ে আছে। ঘুরাফিরা করছে আমাদের মাঝেই! অথবা জঙ্গী হবার প্রসেসে আছে? আবার জংগী অপারেশন নিয়েও মানুষ হয়ে যাচ্ছে দুভাগে বিভক্ত। এখন হামলার আগে কেন পুলিশ অভিযান চালালো বা কেন পুলিশের কেউ নিহত হননি এগুলো নিয়েও মানুষ প্রশ্ন করছে। যদি আমরা একটু এমনই। যেখানে দরকার নেই সেখানেই আমাদের পদচারনা বেশি।

এখন কথা হলো, নর্থসাউথের কানেকশন কি আইএস জঙ্গীদের সাথে। দেশের এলিট শ্রেনীর ইউনিভার্সিটির একি হাল? কেন বেশীরভাগ নর্থসাউথের স্টুডেন্ট বের হচ্ছে? নর্থসাউথে এমন কি আছে বা হচ্ছে যে কারনে সন্ত্রাসী গোষ্ঠী নর্থসাউথের ছাত্রদেরকেই ভবিষ্যত জংগী হিসেবে বেছে নিয়েছে। নর্থসাউথে কি এখনও কোন ছুপা রুস্তম আছে? এটা কি নর্থসাউথের দোষ নাকি নর্থসাউথের লোকেশনের দোষ? ঠিক কি ধরনের সুবিধা পাচ্ছে সন্ত্রাসীরা এখান থেকে রিক্রুট করে। উচ্চ শিক্ষিত আলট্রা মডার্ন ছাত্রদের বেছে নেয়ার কারনটা কি? এটা দিয়ে সন্ত্রাসী গোষ্ঠী ঠিক কি মেসেজ দিচ্ছে। তদন্তের কারনে হয়তো অনেক তথ্য পাবলিকলি সামনে আসছে না কিন্তু নর্থসাউথের অন্যান্য শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা কি এই মুহুর্তে? ম্যাসিভ আকারের ইনভেস্টিগেশন কি চলছে নর্থসাউথে?

কল্যানপুরের অভিযানে সম্ভবত বাংলাদেশ বড় ধরনের কোন হামলা থেকে বেচে গিয়েছে। যতজন যাই বলুক না কেন, এটাই কিন্তু সত্য। ইতিমধ্যে সবার এই অভিযান নিয়েও কনফিউশন দূর হয়ে গেছে আশা করি কারন হামলার আগের কিছু ছবি নানা পত্র-পত্রিকায় ইতিমধ্যে চলে এসেছে। বাংলাট্রিবিউন কিছু রিলিজ করেছে এর মধ্যে। এরা যে জংগী সেটি নিয়ে এখন আর কোন সন্দেহ নেই তবে কিছু মানুষ নানা ছলে বলে কোশলে প্রশ্নবিদ্ধ করার চেষ্টা করেছে সেই অভিযানকে। এটা কি তাদের কনসার্ন ছিল নাকি জঙ্গীদের সাপোর্ট করা ছিল এই ব্যাপারে আমাদের বেজায় সন্দেহ আছে।

আপনার মন্তব্য