পুলিশের ঐতিহাসিক চড় ! !

15847
SHARE

বাংলাদেশের মানুষ দীর্ঘ দিন ধরে নানান সমস্যার মধ্য দিয়ে যাচ্ছে …… জাতীয় সমস্যা , সামাজিক সমস্যা , ব্যাক্তিগত সমস্যা !!!  এইগুলো আবার একটা আরেকটার সাথে সম্পর্কিত ! দীর্ঘদিন এইসব সমস্যার মধ্যে থাকতে থাকতে মানুষের আচার আচরণ জটিল ইয়হেকে জটিলতর রূপ নিচ্ছে ! ”  সন্দেহ  ” একটা জাতীয় সমস্যায় রূপ নিচ্ছে দিনকে দিন !

এখন মানুষের আবেগ, আদর্শ , দৃষ্টিভঙ্গি,  দেশপ্রেম , ধর্মানুভূতি  ইত্যাদি সব আচরণ নির্ধারক নিয়ামক গুলো পরস্পর দ্বন্দ্বে লিপ্ত- মানুষ গুলো ভুগছে আত্মবিভ্রান্তিতে  ! যার ফলে একটা বিশেষ পরিস্থিতিতে একজন মানুষ ঠিক কি ভূমিকা রাখছে বা কি প্রতিক্রিয়া দেখাচ্ছে তা অনেক ক্ষেত্রে সে নিজেও জানেনা ! বেশ কিছু পরস্পর বিরোধী Dogma দ্বারা মানুষ গুলো আজ আক্রান্ত !

আবার , এর জন্য সাধারণ মানুষকে তিরস্কার করারও সুযোগ খুব কম !!!

কারণ, মানুষ তার ব্যাক্তিগত জীবনে সেই ভূমিকাই দেখায় যেটা সমাজ তাকে শিক্ষা দেয় !

সমাজ জীবন আবার রাষ্ট্র দ্বারা নিয়ন্ত্রিত !

রাষ্ট্র আবার নিয়ন্ত্রিত নীতিনির্ধারক দ্বারা !

নীতিনির্ধারকরা আবার সমাজের অংশ !

সব মিলিয়ে একটা জটিল অবস্থা ! সুতরাং, মানুষের আজকের জটিল মানসিক অবস্থা মানুষেরই সৃষ্টি , কোন Alien এর না ! সুতরাং সমাধানও মানুষেরই হাতে !

কি সে সমাধান ?!  

সোজা কথা ভাইঃ আমাদের Positively ভাবতে হবে ! যেকোন কিছুর বিচার বিশ্লেষণে সব ধরনের Pre Imposed Dogma থেকে বেরিয়ে আসতে হবে ! পাশের মানুষটির গা জ্বালানো ভুল, হিংসাত্বক ও সাম্প্রদায়িক মন্তব্যের জবাব দেয়ার আগে আমাদের ভাবতে হবে, যেই ভুলটি এই মানুষটি করছে , সেই একি ভুল আমরাও করব কিনা ! ভাবতে হবে জাতীয় ইস্যু গুলোতে আমরা রাজনৈতিক মতাদর্শ নাকি দেশপ্রেম কোনটিকে  প্রাধান্য দিব !  চেষ্টা করতে হবে যেন আমাদের কাজ গুলো  সবার্থ  চিন্তার বাহিরে থাকে কিন্তু বাস্তবমুখী হয় !

এটা আমাদের জন্য কঠিন পরীক্ষার সময় ! একদিকে ধর্মীয় উগ্রবাদ ; অন্যদিকে জাতীয় অনৈক্য ; স্বদেশবিরোধী চক্রান্ত ; আরেক দিকে নগ্ন রাজনৈতিক দ্বন্দ্ব ; তার সাথে আবার সাম্প্রদায়িক অনাস্থা !

জাতীয় সবার্থকে অগ্রাধিকার দিয়ে স্বদেশপ্রেমে উজ্জীবিত ধর্মীয় উগ্রবাদ বিবর্জিত সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির বাংলাদেশ গড়া আমাদের জন্য আজ  একটা Challenge !!!  কারণ, আমরা আজও জাতীয় সবার্থকে প্রাধান্য দিতে পারছিনা ! দলীয় সবার্থ, ব্যাক্তিগত সবার্থ সহ বেশ  কিছু বিষয় আমাদের দেশপ্রেমকে গুলিয়ে দিচ্ছে ! কিন্তু তাই বলে আত্মদ্বন্দ্ব থেকে কি আমাদের মুক্তি মিলছে ?! নাহ ; বরং অনেক অর্জন ম্লান হয়ে যাচ্ছে !

সাম্প্রতিক সময়ে জঙ্গি ইস্যুতে সারা দেশ স্তব্ধ ! আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী যথেষ্ঠ পারদর্শিতার সাথে পরিস্থিতি মোকাবিলা করছে ! কল্যাণপুরে পুলিশের সাম্প্রতিক অভিযান ও এর সাফল্য প্রশংসার দাবি রাখে ! ৯ জন জঙ্গি নিহত হল । অনেক গোলাগুলি হল , কিন্তু পুলিশ বাহিনীর দক্ষতায় সাধারণ মানুষের তেমন ক্ষয় ক্ষতি হল না ! এটা এক বিরাট সফলতা !

কিন্তু এই সফলতাকে ঘিরেও জনমনে সন্দেহ রীতিমত  মর্মপীড়াদায়ক ! ঐ যে আগেই বললাম, সন্দেহের বীজ আমাদের অনেক গভীরে চলে গেছে ! এর থেকে আমাদের মুক্ত হতে হবে ! আজ আমরা পুলিশবাহিনীর এই অর্জনকে উদযাপন করতে পারতাম ! কিন্তু তার বিপরীতে আমরা সমালোচনা আর বিতর্কে লিপ্ত !

পুলিশ মানেই আমাদের মনে হয়, সত্য একটা ঘটনাকে সহজ সরল ভাবে উপস্থাপন করবেনা , তাতে একটু হলেও রং লাগাবে ; পুলিশ মানেই সাধারণ ছাত্রদের থানায় ধরে নিয়ে মাদকের মিথ্যা মামলা দিয়ে পরিবারের কাছ থেকে টাকা খাবে ; পুলিশ মানেই টাকা আর ক্ষমতার কাছে বক্রী হয়ে যাবে ইত্যাদি ইত্যাদি আরও অনেক কিছু …!

কিন্তু আমাদের ভুলে গেলে চলবে না , যত বদনামই থাক , এই একটি বাহিনী দিন-রাত আমাদের নিরাপত্তার কথা ভাবছে । এটি একটি বাহিনী কত সরকারের হাতে যে ব্যাবহার হল !!! সরকার আসে সরকার যায় ; পুলিশ বাহিনীটা কিন্তু রয়েই যায় !!! থেকে যায় ভুল ত্রুটির হিসাব – পুলিশ করেছে… পুলিশ করেছে …!!! ভাল কিছুর কথা আমরা ভুলে যাই , খারাপটা মনে থাকে !

আমরা যে এমন এটা বোধ হয় পুলিশও জানে ! জানবে না কেন ?! এই একটা বাহিনী গণমানুষের খুব কাছে থেকে সেবা দেয়, মাঝে মাঝে সেবা নেয় !  গণমানুষের pulse তো এঁরা বুঝবেই !!  তাই কল্যাণপুরের জঙ্গিনিধন অভিযান নিয়ে অনেকে অনেক কথা বললেও পুলিশ তেমন কিছুই বলল না !!! শুধু জঙ্গিদের কিছু ছবি ছেড়ে দিল ! ঠিক যেন নরম হাতের চড় !!! খেতে ব্যাথা লাগল ঠিকই কিন্তু খারাপ লাগল না !!!   

যাই হোক, এই বাহিনীকে নিয়ে আমাদের ক্ষোভের অন্ত নেই ! কিন্তু কেন যেন মনে হয় , একদিন জাতির শেষ রক্ষা হবে এই বাহিনীর হাত ধরেই ……… ! এটা আমার কেন মনে হয় আমি জানিনা ……… শুধু মনে হয়, পুলিশ হলেও বাঙ্গালী তো ; দেশপ্রেম না থেকে পারে ?!?!?!   

আপনার মন্তব্য