রামপালের অভিশপ্ত চুক্তি

8959
SHARE

সাম্প্রতিক সময়ে বাংলাদেশের মানুষ সম্ভাব্য নানান সামাজিক, রাষ্ট্রীয় ও প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের আশংকায় উৎকণ্ঠিত ! এক দিকে বজ্রাহত হবার মত জঙ্গি সমস্যা , অন্যদিকে অবাক করা রামপাল কয়লা বিদ্যুৎ চুক্তি , আরেক দিকে আশংকা জনক  সম্ভাব্য ৯ মাত্রার ভূমিকম্প ! সেই সাথে আবার মৌসুমি বন্যা ! তার সাথে জাতীয় জীবনের অন্যান্য সমস্যা তো  রয়েছেই !

এই সমস্ত কিছুর সাথে বার্তি উৎপাত সামাজিক অস্থিরতা ও আন্তর্জাতিক অঙ্গনে দেশের ভাবমূর্তি সংকট !

সমস্যা যাই হোক তার সমাধান আছে ! অতীতে বাঙ্গালীরা ঐক্যবদ্ধ্  হয়ে এরকম হাজারও সমস্যার সমাধান করেছে,  এবারও  করবে ! কিন্তু সমস্যা হল এবার যেন দেশের মানুষ সবাই ঐক্যে পৌঁছাতে পারছে না !

যাই হোক , জঙ্গি সমস্যার সরকারী সমাধান চলছে ! ৯ মাত্রার ভূমিকম্প আশংকা স্রষ্টার উপর ভরসা রেখে মানুষ  ভুলে থাকার চেষ্টা করছে !  মৌসুমি বন্যাটা প্রাকৃতিক নিয়মে ধীরে ধীরে চড়াও হবার কথা  থাকলেও মাঝখানে মানুষের (বন্ধুদের)  হস্তক্ষেপে আকস্মিক ছোবল মেরেছে, এই যা !  তবে এই মৌসুমি বন্যা হবারই ছিল !  

আর , রামপাল চুক্তি – সমস্যাটা  ঝুলেই থাকল ! কারণ, চুক্তির ক্ষতিকর দিকটা দেশের সমস্ত মানুষ বুঝতে পারলেও যারা এই ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেয়ার ক্ষমতা রাখেন তাঁরা  বুঝতে পারছেন না , বোঝার চেষ্টাও করছেন নে ! বড় আদ্ভুত !!! তবে আশার কথা এই যে, সরকারের যে যাই বলুক আর করুক সবার শেষে যিনি সিদ্ধান্ত নেয়ার ক্ষমতা রাখেন তিনি আর কেউ নন ; তিনি এদেশের গণ মানুষের নেত্রী, বঙ্গবাঘিনী- মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা । তিনি কখনই এদেশের ক্ষতি হতে দিবেন না ! এদেশের জন্য এই মানুষটাকে কত বড় বড় ত্যাগ স্বীকার করতে হয়েছে তা কারো অজানা নয় ! দেশের স্বার্থ বিরোধী কিছু তিনি কখনওই মেনে নিবেন না !

তাহলে কথা হল, তিনি এখনও সিদ্ধান্ত নিচ্ছেন না কেন ?!

এই প্রশ্নের উত্তর খোঁজার  জন্য বিভিন্ন সময়ে তাঁর রামপাল সংক্রান্ত যে সব বক্তব্য দেখেছি , শুনেছি , পড়েছি তা থেকে পরিষ্কার ভাবে বুঝতে পেরেছি যে, যারা তাঁকে এই বিষয়ে পরামর্শ দিচ্ছে হয় তারাও এ বিষয়ে জানে না অথবা তারা তাঁকে মিথ্যে বলছে ! তারা জানেনা এটা হতেই  পারেনা ; তাঁর মানে নিশ্চিত ভাবে তারা তাঁকে মিথ্যে বলছে ! আবার একদল চাটুকার এটি দলীয় সিদ্ধান্ত ভেবে অন্ধের মত সমর্থন দিয়ে যাচ্ছে !  

আর আমাদের শেষ আশ্রয়, আমাদের বঙ্গবাঘিনী, আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যে এই ক্ষতির বিষয়ে অবগত নন তা যারা তাঁর বিভিন্ন সময়ে রামপাল নিয়ে দেয়া বক্তব্য গুলো দেখেছেন তারা  সহজেই বুঝতে পারবেন ! ক্ষতি যে হবে না এ ব্যাপারে  তিনি যেন নিশ্চিন্ত !! যে কয়লা দিয়ে পানি শোধন করা হয় সেই কয়লা কেমন করে পানির ক্ষতি করবে(!!!)  – এমন সহজ সরল ভাষায়ও আমরা তাঁকে বিস্ময় প্রকাশ করতে দেখেছি ! কেমন অনেকটা আসহায়  ভাবেই যেন তিনি কথাটা বলেছিলেন ! কায়লা দিয়ে পানি শোধন করা হয় এটা সত্যি ! এটা তিনিও জানেন ! আর এটাই তাঁকে বোঝানো হয়েছে ! বিষয়টা যে মোটেই এত সরল নয় মানুষটাকে কেউ তা বুঝিয়ে বলেনি ! এত মানুষের এত চিৎকার  এত ব্যাখ্যা বিশ্লষণ – এসবের কিছুই তাঁর কাছ পর্যন্ত পৌঁছাতে দেয়া হয় বলেও মনে হয় না !

প্রশ্ন হল কেন ?!

উত্তর খোঁজার জন্য খুব কষ্ট করতে হবেনা ! একদিন হয়ত তিনি নিজেই বলবেন – সবাই পায় স্বর্ণের খনি, আর আমি পেলাম চাটুকার আর চোরের খনি ! যেমনটা বলেছিলেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান !

কিন্তু ততদিনে হত অনেক দেরি হয়ে যাবে ! হয়ে যাবে রামপালের অভিশপ্ত চুক্তি এবং আরও অনেক কিছু !!! ধীরে ধীরে জনগণ মুখ ফিরিয়ে নিবে, গণমানুষের আস্থা হারিয়ে জনবিচ্ছিন্ন হয়ে যাবেন তাদেরই প্রিয় জননেত্রী !!! এসবই এখনও একটা সম্ভাবনা মাত্র ! কিন্তু  এ দেশের জন্য যেই মানুষটির ত্যাগ সবচেয়ে বেশি , এ দেশের এবং এদেশের মানুষের মঙ্গলের জন্য যিনি আরও অনেক ত্যাগ স্বীকার করার জন্য প্রস্তুত হয়ে বসে আছেন তাঁকে এমন একটি সম্ভাবনার দিকে অগ্রসর হতে দেখাটা বড় বেশি মর্ম পীড়াদায়ক !!!

আমি কোন রাজনৈতিক বিশ্লেষক নই, পরিবেশ বিশেষজ্ঞও নই, সমাজতাত্ত্বিকও নই ! আমি সেসব শিক্ষিত, সচেতন বাঙালীদের একজন যারা সত্য আর মিথ্যার পার্থক্য বোঝেন, যারা ধর্মান্ধ নয় , যারা অসাম্প্রদায়িক , যাদের মানুষের প্রতি ভালোবাসা কোন নির্দিষ্ট ভূখণ্ডের মাঝে সীমাবদ্ধ নয় ।  

আমি সেসব শিক্ষিত, সচেতন বাঙালীদের একজন যারা বাংলাদেশ নামের এই ভূখণ্ডের জন্য সবিনয় গর্ব আর এক বুক  ভালোবাসা বয়ে বেড়ায় !

আমি সেসব শিক্ষিত, সচেতন বাঙালীদের একজন যারা এ জাতিকে যেসব মহানগণ আজ এই পর্যন্ত টেনে এনেছেন এবং আগামীতেও এগিয়ে নিয়ে যাবেন তাঁদের সবার প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা পোষণ করে !

আমরা  জানি , আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এমন একজন অক্লান্ত ত্যাগী দেশপ্রেমী যিনি এদেশের বোঝা আজন্ম বয়ে চলেছেন !  এদেশের জন্য তাঁর ভালোবাসা তাই শত কুহেলিকার প্ররোচনায়ও দিক ভ্রান্ত হতে পারে না এবং হবেও  না !  আমাদের গণমানুষের ভালোবাসা আর তাঁর মাঝে শুধু এক কালো মাঘের ছায়া ! সে ছায়া ভেদ করে তিনি ঠিকই উপলব্ধি করবেন সত্যকে !  তাঁকে উপলব্ধি করতেই হবে !!!  

কারণ ধ্বংসের দ্বারপ্রান্ত থেকে এ জাতিকে, এদেশকে টেনে তোলার মত দৃঢ়তা, আত্মশক্তি যদি  কারো থেকে থাকে তবে তা আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবাঘিনী জননেত্রী শেখ হাসিনারই আছে !!!  

আপনার মন্তব্য