টাকা নেওয়ার সময় ভালো করে দেখে নিয়েছেন তো?

44
SHARE

হাসান শাহরিয়ার : টাকা ছাড়া কিছুই হয় না। তাই টাকা আমাদের সব সময়ের সঙ্গী। আর সে কারণেই জালিয়াত চক্রের প্রধান টার্গেটও এই টাকা। দেশি টাকা কিংবা বিদেশি টাকা, যাইহোক না কেন, জালিয়াত চক্রের হাত থেকে বাদ যায় না কোনটাই। সব কিছুই তারা জাল করে ফেলে।

জালিয়াত চক্রকে জব্ধ করতে কর্তপক্ষ টাকা তৈরির সময় এতে নানা রকম নিরাপত্তা ব্যবস্থা যুক্ত করেন। কিন্তু তারপরও থেমে থাকে না অপরাধীরা। তারাও অত্যাধুনিক প্রযুক্তির সহায়তায় ভেঙ্গে ফেলার চেষ্টা করে টাকার নিরাপত্তা ব্যবস্থাগুলো। তারপর নতুন উদ্যমে তারা আবার শুরু করে জাল বা নকল টাকা তৈরির কারবার। আর সেসব জাল টাকার নোট পরে সঙ্গবদ্ধ চক্রের সদস্যদের মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয় বাজারে।

দুঃখজনক হলেও সত্য যে, অনেক সময় এক শ্রেণির ব্যাংক কর্মকর্তাকেও এসব চক্রের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে গ্রেফতার হতে দেখা গেছে। এমনকি কোনো কোনো প্রভাবশালী রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বও এসবের সাথে জড়িত বলে অভিযোগ পাওয়া যায়। কিছু দিন আগে তো আবার দেখা গেছে, কোনো কোনো ব্যাংকের এটিএম বুথের মতো অত্যাধুনিক নিরাপত্তা ব্যবস্থা থেকেও জাল টাকার নোট বের হচ্ছিল। এতেই বুঝা যায় জালিয়াত চক্র আসলে কতটা শক্তিশালী।

মনে হচ্ছে জাল টাকা তৈরির চক্রগুলো আবার সক্রিয় হয়ে উঠেছে। রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৬৬ লাখ টাকার জাল নোটসহ ছয়জনকে আটক করেছে গোয়েন্দা পুলিশ। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ২৫ অক্টোবর মঙ্গলবার দিবাগত রাতে এসব অভিযান চালানো হয়। ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স বিভাগের উপ-কমিশনার মাসুদুর রহমান গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, গোপন তথ্যের ভিত্তিতে মঙ্গলবার দিবাগত রাতে গোয়েন্দা পুলিশ রাজধানীর বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালায়। এসব অভিযানে ছয়জনকে আটক করা হয়েছে। তাদের কাছ থেকে ৬৬ লাখ টাকা উদ্ধার করা হয়।
৬৬টি লাখ টাকার জাল টাকার নোট উদ্ধারের ঘটনা সাম্প্রতিক সময়ে একটি বড় ঘটনা। তাতে ধারণা করা যায়, এই জালিয়াত চক্রটি আবার জোর প্রস্তুতি নিয়েই মাঠে নেমেছে। তাছাড়া, সাধারণত ঈদের বাজার, বিভিন্ন মেলা, জোয়ার আড্ডাতেই জাল টাকা ছড়ানো হয় বেশি। বর্তমান সময়টি জাল টাকা ছড়ানোর পক্ষে ঠিক তেমন অনুকূল নয়। তারপরও এ সময় জালিয়াত চক্রের ধরা পড়ার ঘটনা দেখে মনে হচ্ছে এরা এখন নতুন কোনো কৌশলে জাল টাকার কারবারে নেমেছে।

তাই আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পাশাপাশি সাবধান হতে হবে আমাদেরকেও। যে কোনো টাকা লেদেনের সময় ভালো করে দেখে নিতে হবে নোটগুলো আসল নাকি নকল। টাকা নেওয়ার সময় আমিও দেখে নিচ্ছি, আপনারগুলো ভালো করে দেখে নিচ্ছেন তো?

আপনার মন্তব্য